রবিবার, ২৩ জুলাই ২০১৭ ০২:৩৩:১৬ পিএম

কুখ্যাত রাজাকারের নাতি ও মাদক সম্রাট ছাত্রলীগ সভাপতি!

রাজনীতি | নড়াইল | শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৬ | ০৭:৪২:১৩ পিএম

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার চাঁচুড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জাকির শেখ। তার দাদা মরহুম আবু তালেব শেখ ও চাচা হাসেম শেখ এলাকার চিহ্নিত 'রাজাকার' ছিলেন বলে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেছেন। আরও ছাত্রলীগের ওই নেতা এলাকার একজন মাদক সম্রাট। 

দলীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ডহর চাঁচুড়ী গ্রামের মান্নান শেখের ছেলে জাকির শেখের বিরুদ্ধে ঐতিহ্যবাহী এ ছাত্র সংগঠনে অনুপ্রবেশের অভিযোগ উঠেছে। ২০১০ সালে নড়াইল-১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তির অনুগত উপজেলার তৎকালীন ভাইস-চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফার তদবিরে তাকে সভাপতি মনোনীত করা হয়। 
এরপর থেকে জাকির শেখ চাঁচুড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। প্রকৃতপক্ষে জাকির শেখ এলাকার একজন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে একাধিক মাদকের মামলা রয়েছে। 

জাকিরকে সর্বশেষ গত ১৩ জুলাই ২৮ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ১০ পুরিয়া গাঁজাসহ কালিয়া থানার পুলিশ আটক করে। দীর্ঘ সময় কারাভোগের পর ২৯ আগস্ট জামিনে বেরিয়ে এসে আবারো মাদক ব্যবসা শুরু করেছে। 

এছাড়া ২০১৫ সালের ২৭ জুন সদর উপজেলার আউড়িয়া নামক স্থানের মোড় থেকে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ পুলিশের কাছে ধরা পড়ে জাকির। এরপর আনুমানিক ২০-২৫ দিন কারাভোগ করার পর জামিনে মুক্ত হন। 

অছাত্র ও এক সন্তানের জনক ছাত্রলীগ সভাপতি জাকির সম্পর্কে চাঁচুড়ী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাবেক সভাপতি আকমান শেখ বলেন, রাজাকারের নাতি জাকির শেখকে যখন ছাত্রলীগের সভাপতি সিলেক্ট করা হয়। তখন আমি এর তীব্র বিরোধিতা করেছিলাম। কিন্তু কালিয়া উপজেলার সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা তার ব্যক্তি স্বার্থ হাসিলের উদ্দ্যেশে একজন চিহ্নিত রাজাকার পরিবারের সন্তান, অছাত্র ও মাদক ব্যবসায়ীকে ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচন করেন। 

গোলাম মোস্তফার নিকট এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। স্থানীয়রা জানান, জাকিরের দাদা কুখ্যাত রাজাকার মরহুম আবু তালেব শেখ ও চাচা হাসেম শেখ জেলার বিভিন্ন হিন্দু অধ্যুষিত এলাকায় নারী নির্যাতন, লুটপাট ও বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ করেছিল। 

এ প্রসঙ্গে ছাত্রলীগ সভাপতি জাকির শেখ বলেন, 'বর্তমানে আমি নিবেদিতভাবে চাঁচুড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছি। আমার দাদা কিংবা চাচা রাজাকার ছিলেন না। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক একটি মাদক সংক্রান্ত মামলা বিচারাধীন রয়েছে।' 
এ প্রসঙ্গে কালিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইব্রাহিম শেখ বলেন, 'বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের অভিযোগে জাকির শেখকে চাঁচুড়ী ইউনিয়নের ছাত্রলীগের সভাপতির পদ থেকে ইতিমধ্যে বাদ দেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে। কালিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কোনো কমিটিতে তার কোনো পদ নেই।'
সূত্র: যুগান্তর

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন