শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ ০৪:১৪:৩৯ পিএম

বেতন বৈষম্য দূরীকরনসহ ৩ দফা দাবিতে বাগাতিপাড়া কৃষি খামারে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

আব্দুল হাকিম | জেলার খবর | নাটোর | বৃহস্পতিবার, ৩ নভেম্বর ২০১৬ | ০৫:৪০:০৪ পিএম

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের কৃষ্ণা বাণিজ্যিক কৃষি  খামারের শ্রমিকদের বেতন বৈষম্য দূরীকরনসহ তিন দফা দাবিতে কর্মবিরতি পালন  করেছে। 

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মিলের পাহারাদার, দক্ষ শ্রমিক এবং দৈনিক  শ্রমিকরা এ কর্মবিরতি পালন করে। দাবীর সমর্থনে তারা এক বিক্ষোভ মিছিল বের  করে খামারের অফিস কক্ষের সামনের রাস্তায় অবস্থান নেয়। 

সে সময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা  প্রায় ঘন্টা ব্যপী খামারের কর্মকর্তাদেরও অবরুদ্ধ করে রাখে। অফিস থেকে থেকে  কর্মকর্তাদের গাড়ি বের করার চেষ্টা করলেও শ্রমিকরা তাতেও বাধা দেয়। শ্রমিকদের  ভারপ্রাপ্ত হাবিলদার ছমির উদ্দিন জানান, বাগাতিপাড়ার কৃষ্ণা বাণিজ্যিক খামারে  দীর্ঘদিন থেকে ৬২ জন পাহারাদার, ২২ জন দক্ষ শ্রমিক ও ৫ জন শ্রমিক সরদার  হিসেবে কাজ করে আসছে।

এছাড়াও সেখানে দৈনিক শ্রমিকরাও নিয়মিতভাবে  কাজ করে। 

সম্প্রতি দৈনিক শ্রমিকদের পারিশ্রমিক ভারী কাজের জন্য ১৭৫ টাকা  থেকে বাড়িয়ে ২৩০ টাকা এবং হালকা কাজের জন্য ১৬৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৯০  টাকা করা হয়েছে কিন্তু পাহারাদার, দক্ষ শ্রমিক ও সরদারদের ভারী কাজের সম পরিমান  দৈনিক পারিশ্রমিক আগে দেওয়া হলেও এবার তা না বাড়িয়ে ১৭৫ টাকাতেই রেখে  দেওয়া হয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, অন্যান্য শ্রমিকরা দিনে আট ঘন্টা কাজ  করানো হয়। অন্যদিকে পাহারাদারদের দিয়ে ১২ ঘন্টা কাজ করানো হলেও বাড়তি অর্থ  প্রদান করা হয়না। এছাড়াও কোন ধরনের ছুটিও তারা পায়না। 

তিনি এ বেতন বৈষম্য  দূর করে দৈনিক ২৬০ টাকা হারে পারিশ্রমিক নির্ধারন, অতিরিক্ত সময়ের দায়িত্ব  পালনের অতিরিক্ত পারিশ্রমিক এবং সরকারী ছুটি ভোগের সুবিধার দাবি জানান।  এসব দাবী মানা না হলে লাগাতার কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দেন তিনি।  

পাহারাদার মাহাতাব, বেলাল, মজিবুর বলেন, ইতিপূর্বে শ্রমিকদের পারিশ্রমিক  প্রতি সপ্তাহে পরিশোধ করা হলেও এখন দেড় মাসেও তা পাওয়া যায়নি। আবার প্রতি  সপ্তাহের বিলের জন্য জন প্রতি ১০ টাকা হারে কেটে রাখা হয়। এব্যাপারে খামারের  সহকারী ইক্ষু উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ খায়রুজ্জামান বলেন, তাদের দাবিগুলো  লিখিত আকারে দিলে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে তবে কর্মবিরতির  বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলে জানান।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন