বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ ১১:৪৯:১৯ পিএম

পিতার মৃতদেহ বাড়িতে রেখে পরীক্ষায় অংশ নিল ছেলে

আমিনুল ইসলাম বজলু | জেলার খবর | খুলনা | শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৬ | ১০:০০:৪৪ এএম

একদিকে পিএসসি পরীক্ষা অন্যদিকে বাবার লাশ। স্বজনদের আহাজারীতে  চারিদিকে আকাশ-বাতাস যেন ভারি হয়ে উঠেছে। শোকে স্তব্ধ প্রদিপ মন্ডল (১১)।  

গত বুধবার ছিল তার পিএসসি পরীক্ষা, প্রস্তুতিও ভালো ছিল। আকষ্মিক সব  কিছু উলট-পালট করে দিল কোমলমতি প্রদিপের হৃদয়কে। 

কোন দিকে যাবে সে?  কারো কথা না শুনে কিংকর্তব্যবিমূঢ় প্রদিপ তার বাবার লাশ ফেলে ছুটলো পরীক্ষার  হলে। সকলে তখন ব্যস্ত শেষকৃত্যের আয়োজনে। প্রদিপ এবার উপজেলার দক্ষিণ  বাইনবাড়িয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিএসসি পরীক্ষার্থী। উপজেলার গড়ইখালীর  বাইনবাড়িয়ার কাঁঠালতলা চকের বৈকুন্ঠ মন্ডলের ছেলে প্রদিপ।

বুধবার সকালে  আকষ্মিক হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় বৈকুন্ঠের। এরপর পরীক্ষা শেষ করে ছেলে  প্রদিপ ছুটে যায় স্থানীয় শ্মশানে বাবার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে। পারিবারিক সূত্র  জানায়, প্রায় ১০ মাস আগে প্রদিপের মাও সড়ক দূর্ঘটনায় মারা যান। 

বিষয়টি প্রদিপের সহপাঠিদের পাশাপাশি এলাকাবাসীকে নাড়া দিয়েছে অন্য ভাবে।  দক্ষিণ বাইনবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রিয়নাথ  মন্ডল জানিয়েছেন, স্থানীয় বৈকুন্ঠ মন্ডলের (৩২) বুধবার ভোরে অকাল মৃত্যু হলে  এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। এদিকে মৃতর পিএসসি পরীক্ষার্থী ছেলে  প্রদীপ মন্ডল শোকের মাঝেও পড়া-লেখার প্রতি অদম্য বাসনায় পিতার সবদেহ বাড়িতে  রেখে সময়সূচী অনুযায়ী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। 

পরীক্ষায় দায়িত্বরত উপজেলা  সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ ইসলামুল হক মিঠু বলেন, যে কোন  সন্তানের জন্য এ শূন্যতা পূরনের নয়, বাবার মৃত দেহ বাড়িতে রেখে প্রদীপ পরীক্ষার হলে  গেলেও তার পরীক্ষা ভাল হয়েছে। 

তবে হলে সারাটা সময় জুড়ে তার চোখে-মুখে ছিল  কান্নার রোল। বিষয়টি সহপাঠিদের কারো চোখও এড়ায়নি। তারাও কান্নায় ভেঙ্গে  পড়ে।  প্রসঙ্গত, প্রায় ১০ মাস পূর্বে সড়ক দূর্ঘটনায় হতভাগ্য প্রদীপের  মাতৃবিয়োগ ঘটে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন