মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৭ ০৭:১৩:২৭ পিএম

পদ্মায় স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষে, আহত ৮

জেলার খবর | মাদারীপুর | শুক্রবার, ৬ জানুয়ারী ২০১৭ | ০২:২৫:৩২ পিএম

কাওড়াকান্দি-শিমুলিয়া নৌরুটে মুখোমুখি সংঘর্ষে দুটি স্পিডবোট ডুবির ঘটনা ঘটেছে। ঘনকুয়াশার মধ্যে চলতে গিয়ে শুক্রবার সকাল দশটার দিকে এই দূর্ঘটনা ঘটে। এতে দুই স্পিডবোটের কমপক্ষে আটজন যাত্রী আহত হয়েছেন।

নিখোঁজ রয়েছেন আরো দুইজন। আহতদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তবে ডুবে যাওয়া বোটের যাত্রীরা তাদের সাথে থাকা মালামাল হারিয়েছেন।

কাওড়াকান্দি ঘাট সূত্রে জানা গেছে, শিমুলিয়া থেকে যাত্রীবাহী একটি স্পিডবোট কাওড়াকান্দি ঘাটের কাছাকাছি আসলে কাওড়াকান্দি থেকে ছেড়ে যাওয়া অপর একটি যাত্রীবাহী স্পিডবোটের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এসময় উভয় বোটই পানিতে ডুবে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে যাত্রীরা সাঁতরে এবং অন্য বোট দ্বারা উদ্ধার করা হয়। তবে দুই জন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে।

দূর্ঘটনার পর থেকে ফায়ার সার্ভিস শিবচর ইউনিটের একটি দল উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে।

এদিকে লিপি বেগম (৩৫) নামের এক মহিলা নিখোঁজ রয়েছেন বলে দাবি করছেন তার ভাই সফিকুল ইসলাম। তার বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায়।

তিনি জানান, সকালে তার বোন লিপি তার ভাই ও ভাগ্নে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা করে। কাওড়াকান্দি ঘাট থেকে স্পিডবোটে উঠলে ঘাটের তিন নম্বর ফেরি ঘাটে এসে দূর্ঘটনার কবলে পরে। এসময় ভাই ও ভাগ্নে রুবেল ও তৌফিককে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে বোন লিপিকে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন সফিকুল ইসলাম।

নিখোঁজদের উদ্ধারে শিবচর ফায়ার সার্ভিসের একটি দল উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছে।

এদিকে জানতে চাইলে শিবচর থানার তদন্ত কর্মকর্তা আবুল খায়ের মিয়া জানান, ‘সকালে কাওড়াকান্দি ঘাট এলাকায় স্পিডবোট দূর্ঘটনা ঘটে। তবে সকল যাত্রী উদ্ধার হয়েছে। কোন নিখোঁজ বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন