শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০১৭ ০৭:০১:৪৪ পিএম

নূর হোসেনসহ ২৬ জনের ফাঁসি, না.গঞ্জে কঠোর নিরাপত্তা

আইন আদালত | নারায়ণগঞ্জ | সোমবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৭ | ১১:২৮:৫৬ এএম

আলোচিত ৭ খুন মামলার রায় আজ। আর এ জন্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালত এলাকায় নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা। নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেনের আদালতে এ মামলার রায় দেয়া হয়। সোমবার সকাল ১০টায় রায় ঘোষণা করেন বিচারক।

মামলায় প্রধান আসামি নূর হোসেনসহ ২৬ জনের ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। এছাড়া বাকি ৯ আসামির বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

৭ খুন মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে কোনো বিশৃঙ্খলা যাতে সৃষ্টি না হয় এ জন্য আদালত এলাকায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে জলকামান, পুলিশভ্যান ও প্রিজনভ্যান। প্রবেশের দু’টি ফটকে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। নেয়া হয়েছে তল্লাশির ব্যবস্থা। সতর্ক রয়েছে পুলিশ।

সকাল ৯টার কিছু পর নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে আদালতে নেয়া হয় মামলার ১৮ আসামিকে। এছাড়াও মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনসহ র‌্যাবের ৩ কর্মকর্তাকে আনা হচ্ছে কাশিমপুর কারাগার থেকে।

২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে অপহৃত হন সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম ও আইনজীবী চন্দন সরকারসহ ৭ জন। অপহরণের ৩ দিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ৩০ এপ্রিল ভেসে ওঠে ছ’টি লাশ। ১ মে মেলে আরেকটি লাশ। ঘটনার পর কাউন্সিলর নজরুলের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বাদী হয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা নূর হোসেনসহ ছ’জনের নামে।

আইনজীবী চন্দন সরকার ও তাঁর গাড়িচালক ইব্রাহিম হত্যায় ১১ মে ফতুল্লা থানায় আরেকটি মামলা করেন তার জামাতা বিজয় কুমার পাল। ১১ মাস তদন্তের পর ২০১৫ সালের ৮ এপ্রিল র‌্যাব-১১-এর সাবেক ২৫ জন কর্মকর্তা-সদস্যসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। ২০১৬ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি মামলার অভিযোগ গঠিত হয়। এরপর ৮ মাস মামলার বিচারকাজ চলার পর গেলো ৩০ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেন মামলার রায় ঘোষণার ঠিক করেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন