শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯ ০৩:৫২:৩২ এএম

টাঙ্গাইলে নিখোঁজের ১১ দিন পর গৃহবধুর লাশ উদ্ধার

জেলার খবর | টাঙ্গাইল | সোমবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৭ | ০৯:০৩:০৭ পিএম

নিখোঁজের ১১ দিন পর রহিমা বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধুর লাশ টয়লেটের কুয়া থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ২ নং জামুর্কি ইউনিয়নের সাটিয়াচড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। গৃহবধুর স্বামীর নাম লিয়াকত আলী।

মির্জাপুর থানা পুলিশ ও নিহত গৃহবধুর পরিবার জানায়, ১১ দিন পুর্বে রহিমা বেগম নিখোঁজ হন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে না পেয়ে ঘটনাটি থানা পুলিশকে জানানো হয়েছিল। পুলিশ বিভিন্ন স্থানে খুঁজেো গৃহবধুর কোনো সন্ধান পাননি।

আজ সোমবার বাড়ির লোকজন টয়লেটে গেলে টয়লেটের কুয়া থেকে পচা দুর্গন্ধ পায়। বিষয়টি আশপাশের লোকজনে জানালে তারা ছুটে এসে টয়লেটের কুয়ার পাট ভেঙ্গে গৃহবধুর লাশ দেখতে পান। পরে বাড়ির লোকজন ঘটনাটি মির্জাপুর থানা পুলিশকে জানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল সদর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।

গৃহবধুর পুত্র ওয়াসিম অভিযোগ করেন, এক বছর আগে পাশের কাটরা গ্রামের আলম নামে এক ব্যক্তি ৬ লাখ টাকা নিয়ে তাকে বিদেশে পাঠান। জাল ভিসা হওয়ায় তিনি বিদেশ থেকে ফিরে আসেন। বিদেশ থেকে ফিরে আসার পর আলমের কাছে টাকা ফেরত চাইলে আলম ও তার পরিবার তাদের নানাভাবে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে। তাদের ধারনা আলম ও তার পরিবারের লোকজন তার মাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যার পর লাশ গুম করতে চেয়েছিল।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।তবে কি কারনে গৃহবধু খুন হয়েছে তা এখনও উদঘাটন হয়নি।পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করছে।থানায় মামলা হয়েছে।তবে ঘটনার সঙ্গে জড়িত কেউ গ্রেফতার হয়নি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন