বৃহস্পতিবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৮ ০২:১৪:৩৯ এএম

রাজারহাটে চোর সন্দেহে নির্যাতিত যুবকের মৃত্যু, আটক ২

জেলার খবর | কুড়িগ্রাম | সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ | ১১:০৫:১১ এএম

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে চোর সন্দেহে অমানবিক নির্যাতনের পর চুরির মামলা দিয়ে থানায় সোপর্দের পর এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

এ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে রাজারহাট থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ নির্মম ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার খুলিয়াতারী গ্রামে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, গত শনিবার ভোর রাতে রাজারহাট উপজেলার খুলিয়াতারী গ্রামের আব্দুল আউয়াল ও তার সহযোগী ৮/১০জন সহ একই গ্রামের ফরহাদ আলীর পুত্র তাজুল ইসলাম (২২) কে চোর সন্দেহে ধরে হাত-পা বেঁধে বিবস্ত্র করে এলোপাতারী পারপিট করে।

এতে তাজুল গুরুতর আহত হয়। পরে ঐ দিন সকালে রাজারহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রাথমিক চিকিৎসার পর ঐ যুবককের বিরুদ্ধে আব্দুল আউয়াল চুরির মামলা (নং-০৪-তারিখ-০৪/০২/১৭) দিয়ে তাকে রাজারহাট থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করে।

সারাদিন অসুস্থ্য অবস্থায় ঐ যুবক তাজুল ইসলামকে রাজারহাট থানা হাজতে রাখা হয়। বিকেলে তাকে কোর্টে চালান করা হলে সে আরো অসুস্থ্য হয়ে পরে। এরপর কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তির পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

পরে গত শনিবার রাতে তাজুলের পিতা বাদী হয়ে ৯জনের নাম উল্ল্যেখ পূর্বক এবং
আরো অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামী করে রাজারহাট থানায় একটি হত্যা মামলা
(নং-০৫-০৪/০২/১৭) দায়ের করেন।

মামলার পর পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ওই গ্রামের আব্দুল কাদেরের
পুত্র আব্দুল আউয়াল (৪০) ও মকবুল হোসেনের পুত্র মোজাহেদুল ইসলাম (২২) কে
গ্রেফতার করে কুড়িগ্রাম জেল হাজতে প্রেরন করে।

রোববার পুলিশ নিহত তাজুল ইসলামের লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম সদর
হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে।

তাজুল ইসলামের পিতা ফরহাদ আলী জানান, জমিজমা সংক্রান্ত মামলা ও পূর্ব
শত্রুতার জের ধরে আমার পুত্রকে হত্যা করা হয়েছে।

তাজুলের মা বুলো বেগম জানান, রোববার তার পুত্র তাজুলের বিয়ে হওয়ার কথা
ছিল, তাকে যারা কবরস্থানে পাঠালো তাদের যেন কঠিন বিচার হয়।

এবিষয়ে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোখলেসুর রহমান জানান, সুরতহাল রিপোর্টে মৃতের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ২জনকে আটক করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন