সোমবার, ২৬ জুন ২০১৭ ০৪:৩০:৪১ এএম

ঐতিহাসিক ১২ই ফেব্রুয়ারী,বান্দরবান ট্রাজেডির ৮ম বছর আজ

জেলার খবর | বান্দরবন | বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ | ০৪:৪৯:০১ পিএম

চট্টগ্রাম কলেজের বান্দরবান ট্রাজেডির ৮ম বছর আজ। ২০০৯সালের এই দিনে চট্টগ্রাম কলেজের অর্থনীতি বিভাগের ২০০৫-২০০৬ শিক্ষাবর্ষের পিকনিকের বাস ২০০ফুট নিছে খাদে পড়ে যায়। অকালে প্রান হারায় সানী বড়ুয়া, প্রিয়সী মৎসুদ্দী, পাপড়ী মল্লিক, ফারজানা আলী, মাহমুদুল হাসান, শান্তা সহ মোট ১২ জন, যাদের মধ্যে ২জন অভিভাবক রয়েছেন মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার জন্য যারা দেশে এসেছেন।

সানি বড়ুয়া যে ছিল একজন শিল্পী, ১৪ফেব্রুয়ারী ভালবাসা দিবসে গানের প্রোগ্রাম ছিল তার, কিন্তু সেই গানের আগে তার কন্ঠরোধ হয়ে গেল।

প্রিয়সী মৎসুদ্দী ও একজন শিল্পী ছিল, বিয়ের কথা পাকা ছিল, কয়দিন পর বিয়ে হবে, কিন্তু নিয়তির বিধানে বিয়ের মেহেদী হাত রাঙানোর সুযোগ হয়নি।

হতাহত এবং পঙ্গুত্ব বরন করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারেননি অনেকে।সেদিন চট্টগ্রাম মেডিকেলে হতাহতের সারি দেখে কান্না রোধ করা কঠিন ছিল।

মেডিকেলের দুইগেইট খোলা ছিল, পুরো মেডিকেল মনে হল চট্টগ্রাম কলেজ। ছাত্র ছাত্রীদের এমন জমায়েত মেডিকেলে আমি কখনো দেখিনি।

হতাহতের মধ্যে অন্যতম ছিল তুহিন প্রায় ২মাস পর যার জ্ঞান ফিরেছিল, সে বেচে আমাদের মাঝে ফিরবে কেউ কল্পনা করেনি।বন্ধুদের চেষ্টা, সকলের ভালবাসা এবং মহান আল্লাহর কৃপায় সে আজ মোটামুটি সুস্থ।

পরবর্তীতে অনার্স মাস্টার্স কমপ্লিট করলেও স্বাভাবিকভাবে হাটতে না পারায় সে আজো বেকার।

কবি জসামউদ্দীনের ভাষায় বলতে হয় বেহেশত নসীব করিও সকল মৃত্যু ব্যথিত প্রান।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন