রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭ ১১:১৪:৪৯ এএম

ভূমি রেজিস্ট্রিতে মোবাইল অ্যাপসের ব্যবহার

সৌরভ কুমার ঘোষ | জেলার খবর | কুড়িগ্রাম | বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ | ০৫:০৭:১১ পিএম

ভূমি ও রেজিস্ট্রি সেবা নামে মোবাইল অ্যাপস তৈরি করেছেন কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলা সাব রেজিষ্ট্রার মোঃ শাহজাহান আলী। এ অ্যপসের সেবা নিয়েই এখন ভুমি রেজিস্ট্রি শুরু করছেন ভুরুঙ্গামারী উপজেলার মানুষ। এতে করে ভুমি সংক্রান্ত জটিলতা থেকে রেহাই পাচ্ছেন মোবাইল অ্যাপস ব্যবহারকারীরা। ভূমি রেজিস্ট্রিতে অ্যাপসের ব্যবহার শুরু করেছে জেলার অন্য সাব-রেজিস্টার অফিস গুলোতে।

মোবাইল অ্যাপসটিতে আছে দলিলের ফরমেট, দলিল রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি, দলিল রেজিস্ট্রি খরচ, দলিলের নকল বা সার্টিফাইট কপি প্রাপ্তিসহ ভুমি সংক্রান্ত রেজিস্ট্রি অফিসের সকল তথ্য। রেজিষ্ট্রি অফিসের তথ্য প্রাপ্তিতে সাধারন মানুষের সীমাবদ্ধতা ও অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে এক শ্রেনীর মানুষ ভূমির ক্রেতা ও বিক্রেতাকে অন্ধকারে রাখলেও প্রযুক্তির কল্যানে বদলে যেতে শুরু করেছে এসব প্রতিকুলতা। ভূমির দলিল রেজিস্ট্রি খরচ, নামজারী, সম্পত্তির উত্তরাধিকার, জাল দলিল, রেজিষ্ট্রেশন আইন, সম্পত্তি হস্তান্তর, বিবাহ তালাকসহ নানা সুবিধা সম্বলিত মোবাইল অ্যাপস ব্যবহার করছেন কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার মানুষজন।

রেজিষ্ট্রি অফিসের নানা তথ্য ভান্ডার সম্বলিত এ অ্যাপস ব্যবহার করে সরকার নির্দ্ধারিত মুল্যে ভুমি রেজিষ্ট্রিসহ সহজেই দলিল প্রাপ্তির সুবিধা পাচ্ছেন তারা। এতে করে কমে আসছে ভুমি ক্রয়-বিক্রয় সংক্রান্ত নানা জঠিলতা। রেজিষ্ট্রি অফিসের দলিল লেখক, মোহরা ও দালালদের সরনাপন্ন হওয়া মানুষগুলো এখন রেজিষ্ট্রি সংক্রান্ত সরকারী নানা খরচ সহজেই ঘরে বসে জানতে পারছেন।

দালালের মাধ্যমে বেশী খরচ হওয়ায় রেজিষ্ট্রি অফিস নিয়ে নেতিবাচক ধারনা থেকে বের হয়ে আসছেন তারা। এ্যানড্রোয়েড মোবাইলে প্লে ষ্টোরে বাংলায় ভুমি ও রেজিস্ট্রি সেবা লিখে সার্চ দিলে এ অ্যাপসটি বিনামুল্যে পাওয়া যাবে।

ভুরুঙ্গামারী উপজেলার মানিক কাজি গ্রামের জয়নাল আবেদীন জানান, আমি ভুঙ্গামারী উপজেলা সাব-রেজিষ্টার অফিসে জমি রেজিষ্ট্রি করতে এসেছি। এর আগে আমি জমি রেজিষ্ট্রি সংক্রান্ত মোবাইল অ্যাপসটি সংগ্রহ করে জমি রেজিষ্ট্রি সংক্রান্ত সকল তথ্য জেনে নিয়েছি। এখন আর ভুমি অফিসের কারো দারস্থ হয়ে প্রতারিত হতে হবে না। ভুরুঙ্গামারী উপজেলার সদরের হাফিজুর রহমান জানান, ভুমি রেজিষ্ট্রি সংক্রান্ত বিষয়ে অন্ধকারে ছিলাম।

যে পরিমান জমি রেজিষ্ট্রি করতে আগে ১০ হাজার টাকা বেশি দিতে হতো এখন আর তা নিতে পারছেন না দলিল লেখকরা। তাছাড়া বর্তমানে ভুমি রেজিষ্ট্রির সময় অফিস থেকে মোবাইল নম্বর নেয়া হয়। দলিল বের হলে অফিস থেকে ফোন দিলে দলিল নিয়ে আসতে পারছি।

অ্যাপস তৈরিকারী কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলা সাব রেজিষ্ট্রার মোঃ শাহাজাহান আলী জানান, এক্সেস টু ইনফরমেশন (এ ২ আই) প্রকল্পের মাধ্যমে ইনভিশন ইন পাবলিক সার্ভিস শিরোনামে ট্রেনিং এর মাধ্যমে ভূমি রেজিষ্ট্রিতে জনভোগান্তি কমাতে এ অ্যাপসটি তৈরী করেছেন তিনি।

প্লে-স্টোর থেকে মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করে বিনা খরচে ভূমি সংক্রান্ত সকল তথ্য জানতে পারবেন ভুমির ক্রেতা ও বিক্রেতারা। এছাড়াও বিবাহ রেজিষ্ট্রি ও তালাক সংক্রান্ত সকল তথ্যও পাওয়া যাবে অ্যাপসটিতে।

কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিন জানান, ভুমি রেজিষ্ট্রি সংক্রান্ত সকল তথ্য সহজেই দেশের মানুষের কাছে পৌছে দিতে অ্যাপসটি নিয়ে কাজ করছে এ ২ আই। দ্রুতই এ সেবা সকল মানুষের কাছে পৌছে দেওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। যুগ যুগ ধরে ভূমি সংক্রান্ত আইন নিয়ে অন্ধকারে থাকা দেশের মানুষের কাছে প্রযুক্তির কল্যানে পৌছে দিতে পারলে ভূমি সংক্রান্ত সকল জঠিলতা। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে এগিয়ে যাবে দেশ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন