বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১২:৪৯:৪৫ পিএম

ফেসবুকে প্রেম, প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিক

জেলার খবর | বরিশাল | শনিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ | ১১:৩৩:১৮ পিএম

প্রেম মানে না কোনো বাধা। এই প্রেমের টানে প্রেমিক-প্রেমিকার ঘরবাড়ি ছাড়ার বহু ঘটনার কথা লেখা হয়েছে গল্প ও উপন্যাসে। কিন্তু এই আধুনিক যুগে ফেসবুকে সৃষ্ট প্রেমের টানে প্রেমিক শুধু ঘর ছাড়েনি, ঢুকে পড়েছে খোদ প্রেমিকার ঘরে। কিন্তু বাঁধ সেধেছে বেরসিক পুলিশ। রসবোধের ধার না ধেরে প্রেমিক অষ্টম শ্রেণির ছাত্র সাজিদকে আটক করে বরিশাল গোয়েন্দা পুলিশ। কিন্তু এর আগে সাজিদ তার প্রেমিকার বাড়িতে ১৮টি রাত কাটায়। বিবাহিত ওই প্রেমিকার বাড়ি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় । প্রেমিকাকেও আটক করা হয় শুক্রবার তার বাসা থেকে।

শনিবার বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের পর প্রেমিক-প্রেমিকাকে নিজ নিজ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সহকারী কমিশনার ফরহাদ হোসেন জানান, ‘বেশ কিছু দিন আগে বরিশাল নগরীর আমানতগঞ্জের বেলতলার আল-মদিনা সড়কের এইচ এম জিয়াউর রহমানের ছেলে সাকলাইন সাজিদের (১৪) সাথে ফেসবুকে পরিচয় হয় বিবাহিত গৃহবধু ভাবনা মালাকারের (১৯)।’ এরপর যথারীতি প্রেম। ২৯ জানুয়ারি ভাবনা মালাকার বরিশাল যান। নগরীর একটি উদ্যানে সাজিদের সাথে দেখা হয় ভাবনার। পরদিনই সাজিদকে নিয়ে ভাবনা যান নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় তার স্বামী সুমন মিস্ত্রীর বাড়িতে। এরপর যা ঘটার কথা তাই ঘটে। বাবা-মার সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করেনি সাজিদ।

এদিকে সাজিদের কোনো খোঁজ না পেয়ে থানায় ডায়েরি করেন তার বাবা।

এরপর ডিবির ডিসি উত্তম কুমার পালের নেতৃতে ডিবির এসি ফারহাদ হোসেনের সহযোগিতায় এসআই মুরাদ হোসেন আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে সাজিদের সন্ধান পান। ওই দিনই সাজিদ ও ভাবনা মালাকার এবং তার স্বামীকে বরিশালে নিয়ে আসা হয়। শনিবার অনুষ্ঠানিকভাবে সাজিদ ও ভাবনা মালাকারকে তাদের নিজ নিজ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন