বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০১৭ ০৮:২১:৩৬ পিএম

উদ্বোধনের দুদিন পরই থানার প্রবেশদ্বারের ফলক ভাঙচুর

জেলার খবর | ফেনী | বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ | ১২:৪২:০৮ এএম

ফেনী মডেল থানার প্রবেশদ্বারের বাইরের দিকে নবনির্মিত ফলক ভেঙে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে ফলকটি ভেঙে ফেলা হয়। এর আগে ১৯ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিক ওই ফলকটির উদ্বোধন করেন ফেনী পুলিশ সুপার রেজাউল হক পিপিএম।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ফেনী মডেল থানার প্রধান ফটকের বাইরে গত রোববার ফলকটির উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার। আড়াই ফুট উচ্চতা ও দুই ফুট প্রস্থের ফলকে লেখা ছিল ‘ফেনী মডেল থানার প্রবেশদ্বার, উদ্বোধন করেন রেজাউল হক পিপিএম, তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি রবিবার, সহযোগীতায় ফেনী পৌরসভা।’

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে ৮ থেকে ১০ জন ব্যক্তি ট্রাংক রোডের মডেল থানা ফটকের সামনে হাজির হয়। এ সময় তারা হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ফটকটি ভেঙে ফেলে। কিছুক্ষণ পর তারা চলে যায়। ফটকে লাগানো সিসিটিভি ক্যামেরায় বিষয়টি ধারণ করা রয়েছে।

ঘটনার পর পরই ফেনীর পুলিশ সুপার রেজাউল হক জেলার অন্য পুলিশ কর্মকর্তাদের নিয়ে সেখানে যান এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে দুই থেকে আড়াই ঘণ্টা পর্যন্ত মডেল থানায় অবস্থান করে পুরো ঘটনা নিয়ে বৈঠক করেন।

এ সময় সেখানে ছিলেন ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সামছুল আলম সরকার, সহকারী পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) আমিনুল ইসলাম, ফেনী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রাশেদ খাঁন চৌধুরি, জেলা গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদসহ পুলিশ কর্মকর্তারা। এ সময় সকলে এ ঘটনার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

বৈঠকের পর পুলিশ সুপার এ ঘটনার জন্য সরাসরি কাউকে দায়ী না করে বলেন, কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা আপনারা ভিডিও ফুটেজ দেখলেই পরিষ্কার বুঝতে পারবেন।

তিনি বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে এ ব্যাপারে পরবর্তীতে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানানো হবে।

ফেনী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদ খাঁন চৌধুরি বলেন, এটা খুবই দুঃখজনক। এ ধরনের ঘটনা কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না।

তিনি বলেন, কারো কোনো ব্যাপারে কোনো আপত্তি থাকলে তা অফিসিয়ালি জানানো যেত। এভাবে ভাঙচুর করার কোনো কারণ থাকতে পারে না।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন