রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ১১:৪৬:২৮ এএম

সায়িদা হাতে লিখলো পুরো কোরআন

ধর্ম | সোমবার, ৬ মার্চ ২০১৭ | ০১:০৫:৫৬ পিএম

আলহামদুলিল্লাহ, ফিলিস্তিনের সায়িদা হাতে লিখলো পুরো কোরআন। জেরুজালেমের উত্তরে রামাল্লা শহরে ত্রিশ হাজার মানুষের বসবাস। রামাল্লা ফিলিস্তিনের সরকারি সদর দফতর। এখান থেকে ফিলিস্তিনের প্রশাসন তার কাজকর্ম করে থাকে। ফিলিস্তিনের মানুষ নানান সমস্যার মধ্য দিয়ে দিন কাটায়। তার পরও থেমে নেই তাদের পথচলা। এরই নাম জীবন।

সেই রামাল্লার এক মেয়ে প্রাত্যহিক সব কাজ ঠিক রেখে তিন বছর সময় নিয়ে পুরো কোরআনে কারিম হাতে লেখে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। ফিলিস্তিনি ওই মেয়েকে নিয়ে আরবি ভাষার কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে বিষয়টি সামনে আসে।

ফিলিস্তিনের রামাল্লায় বসবাসকারী ২৪ বছর বয়সী সায়িদা আক্কাদ। ফিলিস্তিনের এই মেয়ে তিন বছর সময় নিয়ে পুরো কোরআনে কারিম হাতে লিখে শেষ করেছে। তার কাজে প্রতিবেশীরা অবাক। এখন তাকে নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা। সেটা দেখতে লোকজন ভীড় জমাচ্ছে সায়িদাদের বাড়ীতে।

সায়িদা আক্কাদ পড়াশুনা থেকে শুরু করে প্রাত্যহিক সব কাজ ঠিক রেখে দীর্ঘ পবিত্র কোরআনের পাণ্ডুলিপি লিখে শেষ করেছেন।

সায়িদা আক্কাদ ২০১৪ সালে কোরআন শরিফ লেখার কাজ শুরু করেন। তিন বছর পর তার এই কাজ সম্পন্ন হয়। সায়িদার বাবা রামাল্লায় ফলের ব্যবসা করেন। সায়িদা পরিবারের বড় মেয়ে।

তার ভাষায়, ফিলিস্তিনের তো আর সমস্যা কম নয়। ইসরায়েলের কাছ থেকে অধিকৃত এলাকা ফিরে পেতে চলছে স্বাধীনতার সংগ্রাম। এরই মাঝেই আমাদের সব কাজ করতে হয়। ইচ্ছে হলেই ঘর থেকে বের হওয়া যায় না।

তাই অবসর সময়টা কাজে লাগানোর জন্য আমি কোরআন হাতে লেখার কাজ শুরু করি। আর দেখতে দেখতে কাজটি শেষও হয়ে যায়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন