বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০১৭ ০৪:৫৬:৫২ এএম

এই সিদ্ধান্ত সৌদি আরবের মত দেশের জন্য খুবই উৎসাহব্যঞ্জক

প্রবাস | মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০১৭ | ০৭:৩৮:১২ পিএম

প্রকাশ্য প্ল্যাটফর্মে নারীদের মতপ্রকাশের সুযোগ দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত সৌদি আরবের মত দেশের জন্য খুবই উৎসাহব্যঞ্জক। কিন্তু আল-কাসিম প্রদেশে মেয়েদের এই কাউন্সিল উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে যখন এই ইতিবাচক উদ্যোগ তুলে ধরা হল তখন দেখা গেল কর্তৃপক্ষ একটা বিষয় খেয়াল করে নি: নারীর উপস্থিতি।

কাসিম গালর্স কাউন্সিলের বৈঠকের যে প্রচারণামূলক ছবি প্রকাশ করা হয় তাতে দেখা যায় ১৩জন পুরুষ মঞ্চে বসে আছেন, সেখানে কোন নারী নেই। তবে নারীরা কার্যত ছিলেন অন্য আরেকটি ঘরে এবং তাদের কাউন্সিলের বৈঠকের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছিল ভিডিওর মাধ্যমে।

সৌদি আরবে আত্মীয়তার সম্পর্ক নেই এমন নারী পুরুষকে পৃথক রাখার নীতি কঠোরভাবে মেনে চলা হয়। তবে এইধরনের নীতি কিছুটা শিথিল করার সরকারি উদ্যোগের অংশ হিসাবে নেওয়া প্রথম এধরনের বৈঠকে পুরুষ-প্রধান এই নারী কাউন্সিলের ছবিটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ব্যাপকভাবে আলোচিত হচ্ছে।

-বিবিসি

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন