মঙ্গলবার, ২৭ জুন ২০১৭ ১২:৫৬:০২ পিএম

কুড়িগ্রামে বন্যায় ব্রিজ ভেঙ্গে মরণ ফাঁদে পরিনত

জেলার খবর | কুড়িগ্রাম | বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০১৭ | ০১:৩৯:৫০ পিএম

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার বেরুবাড়ী ইউনিয়নের ‘নাগেশ্বরী-চরবেরুবাড়ী রাস্তার বাহেজের ঘাটের ফুট ব্রীজটি গত বন্যায় মাঝখানে ভেঙ্গে গিয়ে এখন তা মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। বেরুবাড়ী ও চরবেরুবাড়ী এলাকাসহ দুধকুমর নদের পুর্বপাড়ের কচাকাটা, কেদার ও বল্লভেরখাস ইউনিয়ন তিনটির হাজার হাজার মানুষ ওই রাস্তাটি দিয়ে যাতায়াত করেন।

চরবেরুবাড়ী গ্রামের মোঃ সফিউদ্দিন (৭৫) ও নুরজ্জামান (৬৫) জানান, আজ থেকে ২০/২৫ বছর আগে এই বাহেজের ঘাট বেরুবাড়ীর ছড়া দিয়ে শ্যালো চালিত ও পাল তোলা নৌকা করে নারায়নপুর, কচাকাটা, কেদার ও বল্লভেরখাস ইউনিয়নের মানুষ ধান পাট কালাইসহ নানান ধরনের পন্য নিয়ে যাতায়াত করছিল। অপরিকল্পিত ভাবে বামনডাঙ্গার মুড়িয়া নামক স্থানে দুধকমর নদের উপর পানি উন্নয়ন বোর্ড বেরিবাঁধ নির্মান করায় দুধকুমর নদের শাখা নদী বেরুবাড়ীরছড়াটি ধিরে ধিরে মরে যায়। ফলে মরে যাওয়া ছড়ায় ১৫০ ফুট দৈর্ঘ্য ফুটব্রিজটি নির্মান করা হয়।

চর-বেরুবাড়ী গ্রামের আলতাফ হোসেন ও আব্দুল বাতেন জানান, ১৯৯১ইং সালে ওই ব্রিজটি নির্মান করা হয়। ব্রিজটি ভাঙ্গার পর এখন ঠেলা ও ভ্যানগাড়ী চলে না। ফলে দুই মাইল ঘুরে বেরুবাড়ী বাজার দিয়ে নাগেশ্বরীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মালামাল আনা নেয়া করা হয়।

জানতে চাইলে বেরুবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব জানান, গত ২০১৫ইং সালের বন্যার তোড়ে বাহেজের ঘাটের ব্রিজটি ভেঙ্গে যায়। ভাঙ্গা স্থানে মাটি ফেলে তার উপর দিয়ে মানুষজন কোন রকমে পায়ে হেটে ও সাইকেলে চলাচল করেন। ব্রিজটির পুর্ননির্মানের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা প্রকৌশলীকে জানানো হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে নাগেশ্বরী উপজেলা প্রকৌশলী বাদশা আলমগীর জানান, বাহেজের ঘাটের ভাঙ্গা ব্রিজটি এলজিইডির নয়। ব্রিজটি জেলা পরিষদের। জেলা পরিষদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

যোগাযোগ করা হলে জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী মামুনুর রশীদ বলেন, বাহেজের ঘাটের ব্রিজটি জেলা পরিষদ তৈরী করেনি। ওই ব্রীজটি এলজিইডি করেছে। আপনি এলজিইডিতে যান।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন