সোমবার, ২১ আগস্ট ২০১৭ ০৪:১০:৪৩ পিএম

‘নতুন জেলা হচ্ছে ভৈরব’

জাতীয় | সোমবার, ২০ মার্চ ২০১৭ | ১০:২৪:৩৪ এএম

ভৈরবকে বাংলাদেশের ৬৫তম জেলা করার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সোমবার (২০ মার্চ ) সকালে তিনি এ কথা বলেন।

উল্লেখ্য, কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরবকে বাংলাদেশের ৬৫তম জেলা করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। গত ১২ অক্টোবর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে বিষয়টিকে সামগ্রিকভাবে পরীক্ষা ও পর্যালোচনা করার জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে উচ্চপর্যায়ের কমিটি গঠনের একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

২০০১ সালের জনগণনা অনুসারে ভৈরব উপজেলার বর্তমান আয়তন ১৩৭ কিলোমিটার। জনসংখ্যা দুই লাখ ৪৭ হাজার ১৬৬ জন। তবে কিশোরগঞ্জ জেলায় ১৩টি উপজেলা আছে। সম্ভাব্য নতুন জেলা ভৈরবে কিশোরগঞ্জ জেলার আরও কয়েকটি উপজেলা যুক্ত হতে পারে।

কিশোরগঞ্জ জেলার ১৩টি উপজেলা থেকে ভৈরবসহ পাঁচটি উপজেলা নিয়ে প্রস্তাবিত ভৈরব জেলার গঠনের প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এর মধ্যে তিনটি—বাজিতপুর, নিকলী ও কটিয়াদীর যোগাযোগ কিশোরগঞ্জ সদরের সঙ্গেই বেশি। নরসিংদী জেলার রায়পুরা (একাংশ) উপজেলা প্রস্তাবিত ভৈরব জেলায় অন্তর্ভুক্ত হতে চায়।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের ইচ্ছার বাস্তবায়ন করতে গিয়েই ভৈরব জেলা প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। রাষ্ট্রপতি ছাড়াও স্পিকার অ্যাডভোকেট আবদুল হামিদ এবং এলজিআরডি মন্ত্রী আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম কিশোরগঞ্জের সন্তান। রাষ্ট্রের তিনজন অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির এলাকা হিসেবেও সমস্যাটি বিশেষ গুরুত্ব দাবি করে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন