সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৯:৫১:৩৩ এএম

কলাপাড়ায় নির্বাচনী প্রতীক নিতে এসে হামলার শিকার ইউপি সদস্য প্রার্থী

জেলার খবর | পটুয়াখালী | বুধবার, ২৯ মার্চ ২০১৭ | ০৪:১৮:১২ পিএম

কলাপাড়ায় নির্বাচন অফিসে প্রতীক বরাদ্দ নিতে এসে হামলা শিকার হয়েছেন লতাচাপলী ইউপি নির্বাচনে সদস্য পদপ্রার্থী আবুল হোসেন কাজী (আবুল কোম্পানী)।

কলাপাড়া শেখ কামাল সেতু সংলগ্ন এলাকায় পৌর টোল আদায়কে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সকাল ১১টার দিকে এঘটনায় আবুল কোম্পানীসহ তার সাথে থাকা জলিল আকন (৩২) ও সিদ্দিক (২৭) কে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সংঘর্ষ শুরু হলে টোল আদায়কারীদের পক্ষের আবুল কালাম বয়াতীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০জন আহত হবার খবর পাওয়া গেছে।

এছাড়া আবুল কোম্পানী ও তার সঙ্গীয় দু’জনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে। বাকীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে কলাপাড়া হাসপাতাল সূত্রে জাননো হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতরা জানান, লতাচাপলী ইউপি নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ নিতে কলাপাড়ায় আসেন সদস্য পদপ্রার্থী আবুল হোসেন কাজী। এসময় তার গাড়ী বহরে থাকা আটটি মাহেন্দ্র এবং চারটি মটরসাইকেল নিয়ে বুধবার উপজেলা নির্বাচন অফিসের উদ্দেশ্যে আসছিলেন। বেলা সাড়ে এগারটার দিকে শেখ কামাল সেতুর কাছে কলাপাড়া পৌরসভার টোল আদায় নিয়ে উভয় পক্ষ বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে।

আহত আবুল কোম্পানী বলেন, তিনি পৌর টোল বাবদ তিন শ’ টাকা পরিশোধ করলেও পৌর টোল আদায়কারী পরিচয়ে ৬/৭ জন কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাদের উপড় অতকির্ত হামলা চালায়। এসময় তার সাথে থাকা অনেকেই আহত হয়েছেন। আবুল কোম্পানীর অভিযোগ, এটি তার ওপর পরিকল্পিত হামলা।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিএম শাহ্নেওয়াজ বলেন, সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এব্যাপারে এখনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উল্লেখ্য, শেখ কামার সেতুর কাছে দীর্ঘদিন ধরে টোলের নামে চলছে চাদাবাজি ও জুলুম। যা থেকে রেহাই পাচ্ছেনা কুয়কাটাগামী পর্যটকরাও। এবিষয়ে পত্রিকায় ধারাবাহিক সংবাদ প্রকাশ হলেও কোন প্রশাসন কোন ব্যাবস্থা গ্রহন করেনি। ফলে দিনদিন বেপরোয়া হয়ে উটেচে সংশ্লিস্ট মহলটি এমন ধারনা সকলের।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন