শুক্রবার, ২৩ জুন ২০১৭ ১১:১০:৫৯ এএম

কুমিল্লার ‘জঙ্গিদের’ অচেতন করে জীবিত উদ্ধারের চেষ্টা চলছে

জেলার খবর | কুমিল্লা | শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০১৭ | ০৩:১৫:৩২ পিএম

কুমিল্লার কোটবাড়ীর গন্ধমতি এলাকার জঙ্গি আস্তানায় সকাল ১১টা থেকে ‘অপারেশন স্ট্রাইক আউট’ শুরু হয়ে এখনও চলছে। সেখানে থাকা জঙ্গিদের অচেতন করে জীবিত উদ্ধারের চেষ্টায় সোয়াট সদস্যরা বাড়িটির জানালা দিয়ে ভেতরে গ্যাস আর পানি দেওয়ার চেষ্টা করে। পরে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ওই বাড়ি থেকে আনুমানিক ২৫/২৬ বছরের এক যুবককে বের করে আনা হয়। তাকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

এ সময় এক পুলিশ সদস্যকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ওই এলাকা থেকে বের করে নিয়ে যেতেও দেখা গেছে।

পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, জঙ্গি আস্তানায় জানালা দিয়ে গ্যাস দেওয়ার সময় সৈকত নামে এক পুলিশ সদস্য অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

এর আগে শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে সোয়াট ও বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলের সদস্যরা কোটবাড়ীর দক্ষিণ বাগমারার ওই এলাকায় পৌঁছায়। এরপর বেলা ১১টার দিকে তারা অভিযান শুরু করে। এ সময় বেশ কয়েক রাউন্ড গুলির শব্দ পাওয়া যায়।

এদিকে, অভিযান শেষ না হওয়া পর্যন্ত ঘটনাস্থলের পাশের প্রায় ২ কিলোমিটার এলাকায় নিরাপত্তার স্বার্থে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। স্থানীয়দের বাড়িটি সংলগ্ন সড়কে প্রবেশেও কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম থেকে আসা সোয়াতের একটি টিম ছাড়াও র‌্যাব, পুলিশ, ক্রাইম সিন ইউনিট, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা এই অভিযানে অংশ নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার বিকালে জেলার সদর দক্ষিণ মডেল থানার কোটবাড়ি এলাকার গন্ধমতি গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে দেলোয়ার হোসেন ড্রাইভারের নির্মাণাধীন তৃতীয় তলা বাড়িটি ঘেরাও করে রাখে আইনশৃংখলা বাহিনী। তবে বৃহস্পতিবার কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচন থাকায় নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে ভোটকেন্দ্র সংলগ্ন ওই বাড়িতে অভিযান স্থগিত রাখা হয়। আজ শুক্রবার থেকে জঙ্গিবিরোধী অভিযান শুরু হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন