মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০১৭ ০৪:৫৭:৩৪ এএম

ফেসবুকে প্রেম: ব্রাজিলের তরুণী রাজবাড়ীতে!

জেলার খবর | রাজবাড়ী | মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০১৭ | ০৬:০৩:১৮ পিএম

ভালোবাসা। এটি শুধু একটি শব্দই নয়। একটি পরিভাষাও। যা দুটি মনের চাওয়া পাওয়া এক করে দেয়। ভালবাসা দু’টি মনে যেমনি এনে দেয় শান্তি, তেমনি এটি যখন প্রতারণায় পরিণত হয়। তখন হয়ে উঠে ভয়াবহ। অনেক সময় মৃত্যুরও কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তবে এই ভালোবাসার কারণে অনেকেই সাত সাগর তের নদীও পাড়ি দিতে পারে।

কথায় আছে, প্রেমের কোনও দেশ-কাল-পাত্র নেই। এই প্রেমের টানেই সমাজ-সংসারের সব প্রতিবন্ধকতাকে অতিক্রম করে প্রেমিক-প্রেমিকার মিলনের গল্প নতুন নয় ইতিহাসে। তেমনই এক নজির স্থাপন করলেন রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা সঞ্জয় ঘোষ (২৮) আর ব্রাজিলের তরুণী জেইসা ওলিভেরিয়া সিলভা (২৯)।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের সূত্রে পরিচয় তাদের। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, প্রেম। তারপর বাংলাদেশ আর ব্রাজিলের দূরত্ব ঘুচিয়ে এই যুগল এখন পরিণয়ে আবদ্ধ। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা একনজর দেখার জন্য ভীড় জমিয়েছে ওই প্রেমিকের বাড়িতে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানিয়েছেন, উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের জামালপুর বাজারের বলাই ঘোষের ছেলে শ্যামলী পরিবহনের ঢাকা-কোলকাতা সার্ভিসের কর্মী সঞ্জয় ঘোষের বাড়িতে ব্রাজিল থেকে একজন নারী সোমবার রাতে এসেছে। আজ মঙ্গলবার সকালে খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষ দেখতে ওই বাড়িতে ভীড় জমাচ্ছে।

এ সময় সঞ্জয় ঘোষ বলেন, প্রায় দেড় বছর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে ব্রাজিলের মিউনেশিয়াল অ্যাসিসটেন্ট জেইসা ওলিভেরিয়া সিলভার সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। একপর্যায়ে আমাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর জেইসা বাংলাদেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করে। তারই সূত্র ধরে ব্রাজিল থেকে রওনা হয়ে গতকাল সোমবার ভোরে জেইসা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। সেখান থেকে রাতে আমি তাকে বাড়িতে নিয়ে আসি।

জেইসা আপনাকে বিয়ে করবেন কিনা? এমন প্রশ্নে সঞ্জয় বলেন, সে এসেছে, আমাকে ও আমার পরিবারকে কাছ থেকে দেখলো। এখন সে তার পরিবারের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নিবে। তাকে বিয়ে করলে আমার পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো বাধা নেই।

এদিকে ব্রাজিলের নাগরিক জেইসা ওলিভেরিয়া সিলভা জানান, তিনি সঞ্জয় ঘোষের সাথে পরিচয়ের সূত্র ধরে এসেছেন। যদি সঞ্জয় আমাকে জীবনসঙ্গী করতে চায় তাহলে ব্রাজিলে গিয়ে পরিবারের সম্মতি নিয়ে আবার এখানে এসে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবো। বাংলাদেশকে খুব ভালোবাসেন বলেও জানান তিনি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন