শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১১:৪১:৫৬ এএম

তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে শাস্তি কার্যকর করার দাবি

প্রবাস | রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৭ | ০২:৪৩:১৫ পিএম

সর্বইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ গনি এক বিবৃতি দিয়ে, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে শাস্তি কার্যকর করার জন্য বাংলদেশ সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন। যেখানে তারেক রহমান, সেখানে প্রতিরোধ করে তাকে ধিক্কার জানাতে ইউরোপের সব দেশের আওয়ামী লীগকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

বিবৃতিতে তিনি ১৫ এপ্রিল তারেক রহমানের লন্ডনের মিথ্যাচারপূর্ণ বক্তব্যের নিন্দা জানান। তিনি বলেন, বিএনপি নামক দলটি ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে জন্ম নিয়ে আজীবন মিথ্যা ইতিহাসের মাধ্যমে দেশ ও জাতিকে বিভ্রান্ত করতে চেয়েছে। গত ২৬ মার্চ, তারেক রহমান ভিডিও বার্তার মাধ্যমে বিতর্কিত কথা বলার মাধ্যমে নিজের কুলাঙ্গার চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে। বিএনপি নামক দলটি পাকিস্তানের চিন্তা চেতনাকে এখনও লালন করে বলেই স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহতের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ায়। ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসকে অস্বীকার করে বিভিন্ন মিথ্যা প্রচারের মাধ্যমে জাতিকে বিভ্রান্ত করে। বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের স্বাধীনতা ঘোষণা সর্বজনস্বীকৃত। স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর আমাদের অহংকার মহান স্বাধীনতা নিয়ে মিথ্যা প্রচারের অর্থ হলো বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে অস্বীকৃতি জানানো।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, দুর্নীতির বরপুত্র, দশ ট্রাক অস্ত্র মামলা ও গ্রেনেড হামলার অন্যতম আসামি তারেক রহমানকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে নিয়ে শাস্তি কার্যকর করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের কাছে জোর দাবি জানান। তিনি বলেন, বিদেশে বসে মিথ্যা প্রচার না করে সৎ সাহস থাকলে বাংলাদেশে গিয়ে কথা বলতে বলেন। তখন বুঝতে পারবে বাংলাদেশের মানুষ কতটুকু ঘৃণার চোখে দেখে তারেক রহমানকে।

এমএ গনি বলেন, বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের মূল হোতা তারেক রহমান। তাই তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে নিলে জঙ্গিবাদের মূল মাস্টারমাইন্ডের নাম জানা যাবে। বাংলাদেশ যখন জাতির জনকের আদর্শের শ্রেষ্ঠ সন্তান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছি সেখানে বাংলাদেশ বিরোধী শক্তির মূলকেন্দ্র বিএনপি ষডযন্ত্র করে করে দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়। এই ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

বিবৃতিতে সম্মতি জানান- জার্মান আওয়ামী লীগ সভাপতি একেএম বশিরুল হক চৌধুরী সাবু, সাধারণ সম্পাদক শেখ বাদল আহমেদ, ইতালি আওয়ামী লীগ সভাপতি ইদ্রিস ফরাজী, সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি নাজিম উদ্দিন চৌধুরী, বেনজির আহমেদ সেলিম, সভাপতি এমএ কাশেম, সাধারণ সম্পাদক মুজিবর রহমান, অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগ সভাপতি হাফিজুর রহমান খন্দকার, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল হক, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী রতন, স্পেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শাকিল খান পান্না, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নয়ন, পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি রফিক উল্লাহ, সভাপতি জহিরুল ইসলাম জসিম, সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান, হল্যান্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহাদাত হোসেন তপন, সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান, সুইডেন আওয়ামী লীগ সভাপতি মঞ্জুরুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক লাভলু আনোয়ার, ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আলী রমজান, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম, ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ সভাপতি ইকবাল হোসেন মিঠু ও সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, নরওয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি রুহুল আমিন মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গোলাম কিবরিয়া, সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন, সুইজারল্যান্ড আওয়ামী লীগের আহবায়ক ইমরান খান মুরাদ, সদস্য সচিব খলিলুর রহমান, গ্রীস আওয়ামী লীগের আহবায়ক রাকিব মৃধা, সদস্য সচিব মিজানুর রহমানসহ ইউরোপ আওয়ামী লীগের অন্যান্য নেতা। নেতারা তারেককে বাংলাদেশে ধরে নিয়ে বিচার কার্যকর করতে সরকারকে ইন্টারপোলের সাহায্য নিতে আহবান জানান।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন