বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ ০৮:২৯:৫২ পিএম

মোস্তাফিজের বিয়ের ব্যাপারে যা বললেন তার বড় ভাই

খেলাধুলা | শুক্রবার, ২১ এপ্রিল ২০১৭ | ০৪:৫৮:১৯ পিএম

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নবম আসরে বল হাতে শ্রেষ্ঠত্বের পরিচয় দিলেও দশম আসরে সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত মোস্তাফিজুর রহমান। কারণ ইন্ডিয়ার জনপ্রিয় আসরটিতে মাত্র একটি ম্যাচে তাকে দলে নিয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আর তাতেও নিজেকে চেনাতে ব্যর্থ হোন তিনি। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে ২.৪ ওভারে দেন ৩৪ রান। যদিও মোস্তাফিজ বলেছেন, ‘আমি যেখানে বল ফেলতে চাইছিলাম, সেটাই ঠিকঠাক হচ্ছিল না। ’

মোস্তাফিজকে খেলতে না দেখে দুঃখ পাচ্ছেন তার বড় ভাইও। কিন্তু হতাশ না হয়ে যুক্তি দিয়ে কারণ ব্যাখ্যা করলেন তিনি, ‘ওকে কেন খেলানো হচ্ছে না, তা নিয়ে আমাদের কৌতূহল জাগে, এটা ঠিক। সাধারণত, টিম জিতলে উইনিং কম্বিনেশন বদলাতে চায় না কোনো দলই। বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমও তাই করে। সানরাইজার্স হায়দরাবাদও সেই কাজটাই করছে এখন। ’

দেশ ছেড়ে এখন বিদেশে মোস্তাফিজ। তাই বলে পরিবারের সাথে যোগাযোগ একেবারেই বিচ্ছিন্ন নয়। নিয়মিত বড় ভাইয়ের সাথে কথা হয়। তার কাছে জানতে চান পোষা পায়রাগুলোর কথা। ছেলেবেলা থেকেই পায়রা পোষেন মোস্তাফিজ।

মোখলেছুর বলেন, ‘ওর সাথে প্রতিদিনই আমার কথা হয়। ক্রিকেট নিয়ে কোনো কথাবার্তা অবশ্য হয় না। ক্রিকেট নিয়ে বলার জন্য রয়েছেন কোচ। আছে টিম ম্যানেজমেন্ট। আমরাও যদি ক্রিকেট নিয়ে ওর সাথে কথা বলতে শুরু করে দিই, তাহলে ও কোথায় যাবে। পরিবারের খোঁজখবর নেয়। মা-বাবা, আমরা সবাই কেমন আছি জিজ্ঞাসা করে। পায়রা পোষা ওর নেশা। পায়রাগুলো সম্পর্কে জানতে চায়। এখন পায়রাগুলোর দেখভাল আমিই করি। ’

২১ বছরেই তারকা বনে গেছেন মোস্তাফিজ। ভাইয়ের কাছে অবশ্য আগের মতোই রয়েছেন তিনি। মোখলেছুর বলছেন, ‘বড় তারকা খেলার মাঠেই। বাড়িতে ও আমাদের ছোট ভাই হিসেবেই থাকে। ও যে এত বড় তারকা, বাড়িতে আসলে কেউ বুঝতেই পারে না। সবার সাথে মিশে। মাঠে গিয়ে ছেলেদের সাথে আনন্দ করে। ’

অভিভাবক মোখলেছুরের কথায়, ‘ওর ক্যারিয়ার বেশিদিনের নয়। আরো চার-পাঁচ বছর যাওয়ার পরে ওর বিয়ের কথা চিন্তা করা যাবে। আপাতত ওসব আমাদের ভাবনায় নেই। ’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন