শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০১৭ ০৫:২৩:২২ এএম

‘এখনো মেয়েরা নিজের রক্ত দিয়ে আমাকে প্রেমপত্র লেখে’

সাহিত্য | বুধবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৭ | ০৭:৩৬:৪১ পিএম

‘এখনো মেয়েরা নিজের রক্ত দিয়ে আমাকে প্রেমপত্র লেখে। কেউ কেউ আমাকে বিয়ে করতেও পাগল।’ এমনটাই বলছিলেন বাংলাদেশের বর্ষীয়ান ও জনপ্রিয় লেখক কাসেম বিন আবু বকর। ডেইলি মেইলসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে তাকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

কাসেম বিন আবু বকরের ভক্তরা এই বুড়ো বয়সেও মধুর জ্বালা দেয় বলে জানান লেখক। ঢাকায় তার বইয়ের দোকানে বোরখা পড়া নারীরা চলে আসেন তার অটোগ্রাফ নেওয়ার জন্য। আর বাসার ঠিকানায় অসংখ্য চিঠি-তো আছেই। নিয়মিত এত চিঠি আসে যে পোস্ট অফিসের পিয়ন নাকি তাদের পরিবারের সদস্যের মতো হয়ে গেছে।

বিয়ের প্রস্তাব বা প্রেমপত্রের পাশাপাশি অনেক দুর্নীতিবাজ আমলাদের চিঠিও পেয়েছেন বলে জানান লেখক। তারা কীভাবে তার বই পড়ে সৎ পথে ফিরে এসেছে সেগুলো লেখা থাকে সেসব পত্রে।

তিন দশক আগে প্রকাশিত ‘ফুটন্ত গোলাপ’ এখনো বড় একটা শ্রেণীর কাছে জনপ্রিয়। ১৯৭৮ সালে হাতে লেখা উপন্যাসটি নিয়ে প্রকাশকের কাছে গিয়েছিলেন লেখক কাসেম বিন আবু বকর। কিন্তু প্রকাশক বেশ কয়েক বছর পাণ্ডুলিপিটি পড়েও দেখেনি। ‘মোল্লাদের উপন্যাস চলে না’ বলে প্রকাশনা সংস্থা থেকে বলা হচ্ছিল। মাত্র এক হাজার টাকায় কপিরাইট বিক্রি করে দিয়েছিলেন লেখক কাসেম বিন আবু বকর। প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ওঠে উপন্যাসটি।

তারপর আরও অনেকগুলো উপন্যাস লেখেন তিনি। যেগুলোর কাহিনী আবর্তিত হয়েছে বোরখা পড়া নারী, খারাপ ছেলের ভালো হয়ে যাওয়া, ধর্মের পথে ফিরে আসা যুবক-যুবতীর কথা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন