বুধবার, ১৬ আগস্ট ২০১৭ ১১:৩৭:৪৮ পিএম

লাশ নেবে না আবুর পরিবার

জেলার খবর | রাজশাহী | শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০১৭ | ০৮:১৪:১৮ পিএম

বচাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শিবনগর গ্রামের জঙ্গি আস্তানা থেকে জঙ্গিদের চারটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে জঙ্গি আস্তানা থেকে লাশগুলো সরকারি দুটি অ্যাম্বুলেন্সে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ওয়ারেশ আলী নিশ্চিত করেছেন।

তার আগে দুপুর ১টায় ঘটনাস্থল ত্যাগের সময় চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টি এম মুজাহিদুল ইসলাম জানান, গত রাতে বোমা নিষ্ক্রীয় করা হয়েছে। জঙ্গি আস্তানাটিতে ক্রাইম সিন ইউনিটের সদস্যরা আলামত সংগ্রহের কাজ করছেন। আস্তানার ভেতরে থাকা গুলি ও বিস্ফোরকের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আস্তানা থেকে একটি পিস্তুল, একটি ম্যাগজিন ও একটি সুইসাইড ভেস্ট ও বোমা সদৃশ একটি বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি জানান, নিহত জঙ্গি আবু ছাড়া বাকি তিনজনের নাম ও ঠিকানা শনাক্ত করা যায়নি। ময়নাতদন্ত শেষে ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে চিকিৎসকরা তাদের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত করতে পারবেন। পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক আয়েশা জুলেখা জানান, জঙ্গি আবুর স্ত্রী সুমাইয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আবুর শিশু কন্যা সাজিদা খাতুন সুস্থ আছে।

ময়নাতদন্তের পর আবুর লাশের কী হবে- তা নিয়ে চলছে জল্পনা। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ তার পরিবার গ্রহণ করবে কি না- এ ব্যাপারে দুপুরে আবুর মা ফুলসানা বেগম অসুস্থ অবস্থায় বিছানায় শুয়ে কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আবুর লাশ তারা গ্রহণ করবেন না। এরপর থেকে তিনি অজ্ঞান অবস্থায় আছেন।

আবুর ছোট ভাই সাবুর সদ্য বিবাহিতা স্ত্রী রুনা আখতার বেগম জানান, যেহেতু আবু ও আবুর স্ত্রী জঙ্গি কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত, সেহেতু আবুর লাশ তারা গ্রহণ করবেন না। তবে শিশু কন্যা দুটিকে তারা গ্রহণ করে নিজের সন্তানের মতো মানুষ করে তুলবেন।

আবুর বাবার বাড়ির পাশের মনিরুল ইসলাম বলেন, আবু কোনো নির্বাচনে ভোট দিতেন না। জামায়াতে নামাজ পড়তেন না। সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদের নামাজ পড়তেন। কারও সঙ্গে মিশতেন না। তিনি বলতেন- তার (আবুর) পথ ছাড়া সব পথই ভুল। এমনকি মসজিদের ইমামের পেছনে নামাজ হবে না বলেও প্রচার করতেন। কারণ হিসেবে তিনি বলতেন- এরা সবাই ঘুষখোর ও মুনাফিক।

আবুর প্রতিবেশি সেলিম রেজা বলেন, ‘আবুর কারণে আজ আমাদের বদনাম হয়েছে। সে ও তার স্ত্রী সুমাইয়া জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত। আমরা জঙ্গিমুক্ত এলাকা চাই। যারা জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত, তাদের গ্রেপ্তার করা হোক। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জঙ্গিবিরোধী প্রচার চালিয়ে আমরা আমাদের ছেলে মেয়েদের ভালো পথে রাখব।’

জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের শিবনগর এলাকার একটি বাড়ি গত বুধবার ভোর থেকে ঘিরে রাখে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের সদস্যরা। বিকেলে ঢাকা থেকে সোয়াত টিম পৌঁছানোর পর শুরু হয় অভিযান। এরপর বৃহস্পতিবার অভিযান চলাকালে সন্ধ্যায় আত্মঘাতী হন চার জঙ্গি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এই বাড়ি থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয় আবুর স্ত্রী সুমাইয়া ও মেয়ে সাজিদাকে। তিন মাসের অন্তসঃত্ত্বা সুমাইয়ার পায়ে গুলি লাগায় রাতে তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।রিশালের গৌরনদীতে যৌতুকের দাবিতে স্বামীর বিরুদ্ধে এক গৃহবধূকে নির্মম নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতিত গৃহবধূ তাছলিমা বেগমের দাবি, শেকল দিয়ে বেঁধে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন তার স্বজনরা। এদিকে, অভিযুক্ত স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন