রবিবার, ২০ আগস্ট ২০১৭ ১২:২৮:২৭ এএম

মহেশপুরে কেন্দ্রের বাইরে প্রশ্নপত্র, শিক্ষক ও কর্মচারীর জেল

আতিকুর রহমান | জেলার খবর | ঝিনাইদহ | শনিবার, ১৩ মে ২০১৭ | ১০:৫২:৪০ এএম

আজ সকালে পরীক্ষা শুরুর পূর্বেই প্রশ্নপত্র পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে সরবরাহের ও সরকারি কাজে বাঁধা দেওয়ার অপরাধে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার ডাঃ সাইফুল ইসলাম ডিগ্রী কলেজ কাটগড়া, ইংরেজী প্রভাষক এস,এম হাফিজুর রহমান ও কলেজের এম.এল.এস.এস (পিয়ন) আশরাফুল ইসলামকে দুই মাসের কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক।সকালে মহেশপুর উপজেলার পুড়াপাড়া বাজারে অবস্থিত ডাঃ সাইফুল ইসলাম, কাটগড়া ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রের স্বাব সেন্টার কাটগড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে।

নাম প্রকাশ্যে একজন শিক্ষক জানান, উৎপাদনব্যবস্থাপনা ও বিপনন বিষয়ে পরীক্ষা শুরু হওয়ার ২৫ মিনিট পূর্বেই পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে এম.এল.এস.এস (পিয়ন) আশরাফুল ইসলাম ২ ছাত্রের জন্যে দুটি প্রশ্ন সরবরাহ করে।

এ সময় পরীক্ষা কেন্দ্রে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা দুটি প্রশ্নসহ এম.এল.এস.এস আশরাফুল ইসলামকে আটক করে।

এসময় সংবাদ পেয়ে ডাঃ সাইফুল ইসলাম, কাটগড়া ডিগ্রী কলেজের ইংরেজী প্রভাষক এস.এস হাফিজুর রহমান ছুটি এসে পুলিশের কাছ থেকে ধস্তাধস্তি করে এম.এল.এস.এস আশরাফুল ইসলামকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে।

ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী কর্মকর্তা আশাফুর রহমান জানান, পরীক্ষা শুরু হওয়ার ২৫ মিনিট পূর্বেই পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে প্রশ্নপত্র সরবরাহের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ডাঃ সাইফুল ইসলাম ডিগ্রী কলেজ, কাটগড়া ইংরেজী শিক্ষক এম,এ হাফিজুর রহমান ও কলেজের এম.এল.এস.এস আশরাফুল ইসলামকে উপজেলা পরিষদে নিয়ে আসা হয়।

পরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে প্রভাষক এস,এম হাফিজুর রহমানকে ৪৪ ধারা ভঙ্গ ও সরকারি কাজের বাধা দেওয়ার অপরাধে ২ মাসের জেল ও কেন্দ্রের বাইরে প্রশ্নপত্র সরবরাহের অপরাধে এম.এল.এস আশরাফুল ইসলামকে ১ মাসের জেল দেওয়া হয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন