রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১২:৫৬:২৯ পিএম

কাফরুলে মিতু হত্যাকাণ্ড: ভাগ্নে শাকিল গ্রেফতার

নগর জীবন | বুধবার, ১৭ মে ২০১৭ | ১২:২৭:১৯ পিএম

রাজধানীর কাফরুলে রোজিনা আক্তার মিতু হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামি আহম্মেদ শরীফ শাকিলকে আটক কয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। মাদারীপুর থেকে মঙ্গলবার তাকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের জনসংযোগ শাখার উপকমিশনার মাসুদুর রহমান একথা জানিয়েছেন। এ বিষয়ে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে।

১৮ এপ্রিল কাফরুল থানার বাজারের ৮৩৯ নম্বর চারতলা ভবনের নিচতলায় গলাকেটে হত্যা করা হয় সৌদি আরব প্রবাসী রফিকুল আলম বিপ্লব চৌধুরীর স্ত্রী মিতুকে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনদের প্রাথমিক সন্দেহ, হত্যার সঙ্গে জড়িত রফিকুল আলমের ভাগ্নে শাকিল। এ ঘটনায় নিহতের ভাই ফিরোজ আলম ভূঁইয়া বাদী হয়ে কাফরুল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

এর আগে পুলিশ জানায়, মিতুর দুই মেয়েকে নিয়ে কাফরুলের ওই বাসায় ভাড়া থাকতেন। রফিকুলের বড় বোন রত্নার ছেলে শাকিল ওই বাসায় এসে পড়াতেন মিতু-রফিকুল দম্পতির বড় মেয়ে ফয়ালাকে। পরিবারটির দেখাশোনার দায়িত্বও ছিল তার ওপর।

ওই সময় পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বিদেশ থেকে মামা রফিকুলের পাঠানো টাকাও কখনও কখনও তুলে দিতেন শাকিল। মামী মিতুর কাছ থেকে প্রয়োজনে টাকাও নিতেন তিনি। এই টাকা লেনদেন নিয়েই দু’জনের মধ্যে বিবাদ তৈরি হয়। এ কারণেই খুনের ঘটনা ঘটেছে বলে নিহতের ভাই মামলার এজাহারে অভিযোগ করেছেন।

এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, তার ভগ্নিপতি সৌদি আরব থেকে নিয়মিত টাকা পাঠাতেন। কিছু টাকা মিতুর মোবাইলের বিকাশ অ্যাকাউন্টে থাকত। ভাগ্নে শাকিল মাঝে মধ্যে বিকাশ থেকে টাকা তুলে দিতেন মিতুকে। এ কারণে ওই বিকাশ অ্যাকাউন্টের পিন নম্বরও জানতেন তিনি। নিজের প্রয়োজনেও টাকা তুলতেন শাকিল। মিতু এই টাকা ফেরত চাওয়ার কারণেই শাকিল মিতুকে হত্যা করেছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন