রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৮:০৭:৫০ পিএম

নরসিংদীর ঘটনায় ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

জেলার খবর | নরসিংদী | সোমবার, ২২ মে ২০১৭ | ০৩:৪৯:৪৮ পিএম

নরসিংদীর চিশিনপুর ইউনিয়নের গাবতলিতে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে আত্মসমর্পণকারী পাঁচ জনের মধ্যে র‌্যাবের কাছে আটক থাকা দুই জনসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে র‌্যাব-১১’এর ডিএডি আব্দুর রহমান বাদী হয়ে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে এই মামলাটি দায়ের করেছেন।

মামলার আসামিরা হলেন- আত্মসমর্পণকারী আবু জাফর ও সালাহ উদ্দিন। বাকি ৫ জনের নাম জানা যায়নি।

গত শনিবার বিকেল ৪টা থেকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও পুলিশ নরসিংদীর গাবতলিতে লিবিয়া প্রবাসী মাঈন উদ্দিন আহমেদের নির্মাণাধীন দুতালা বাড়িটি জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখে। রোববার সকাল সোয়া ১০টায় অভিযান শুরু হয় এবং মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটে এ অভিযান শেষ হয়। বাড়িটি তল্লাশি করে কোনো অস্ত্র ও গোলা-বারুদ পাওয়া যায়নি।

র‌্যাব বাড়ির ভেতরে থাকা সন্দেহভাজন পাঁচজনকে তাদের স্বজনদের সহযোগিতায় বের করে আনে।পরে তাদের র‌্যাবের গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়া হয় র‌্যাব-১১ এর নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ে। ওই খানে জিজ্ঞাসাবাদের পর জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে কিছু পায়নি বলে নরসিংদী সদর উপজেলার চরভাসানিয়া এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে বাছিকুল ইসলাম, গাজীপুরের বোর্ড বাজার এলাকার আব্দুল মজিদের ছেলে মাসুদুর রহমান ও কিশোরগঞ্জের ভৈরব এলাকার মশিউরকে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

বাকি দুইজন নরসিংদী উপজেলার চরদিঘলদী গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে সালাহউদ্দিন ও নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে আবু জাফরকে র‌্যাবের হেফাজতে রাখা হয়। পরে আজ এই দুইজনসহ মোট ৭ জনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করে র‌্যাব।

নরসিংদী সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম মোস্তফা মামলার বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, র‌্যাবের কাছে আটক থাকা দুজনসহ আরও পাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে মামলায়। জিহাদি বই বিতরণসহ জঙ্গিবাদসংশ্লিষ্ট কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ করা হয়েছে আসামিদের বিরুদ্ধে। এসব কাজে আবু জাফর ও সালাহ উদ্দিনের সঙ্গে বাকি পাঁচ আসামির যোগসূত্র রয়েছে বলে জানা গেছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন