শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০১৭ ০৭:০৪:৫২ পিএম

প্রতিবেশির স্ত্রীকে পাট খেতে নিয়ে ধর্ষণ, অতঃপর ধর্ষিতাকেই শাস্তি!

জেলার খবর | টাঙ্গাইল | রবিবার, ৯ জুলাই ২০১৭ | ০৫:৪৩:২১ পিএম

প্রতিবেশির স্ত্রীকে পাট খেতে নিয়ে ধর্ষণ। এরপর গ্রাম সালিশিতে সেই ধর্ষিতাকে শারীরিক শাস্তি ও আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে। এমন বর্বরতা আর কোথাও নয় বাংলাদেশের টাঙ্গাইলের নাগরপুরের ঘটনা।

জানা যায়, শুক্রবার রাতে মীরনগর গ্রামের জিন্নত আলীর ছেলে মো. সিরাজ মিয়া (৩৫) প্রতিবেশীর স্ত্রীকে এলাকার জনৈক বারেক মিয়ার পাটক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করেন। এ সময় স্থানীয় লোকজন টের পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ধর্ষক পালিয়ে যান। স্থানীয়রা ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে ইউপি সদস্য মো. হেলাল উদ্দিনের জিম্মায় রাখেন। পরদিন শনিবার (৮ জুলাই) বিকেলে ইউপি সদস্য মো. হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে এক সালিস বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সালিসে ধর্ষক সিরাজসহ তার অভিভাবককে হাজির করা হয়। সালিসে ধর্ষক ও ধর্ষিতাকে তাদের অভিভাবকের মাধ্যমে শারীরিক শাস্তি দেওয়া হয়। একই সঙ্গে ধর্ষকের ৩০ হাজার ও ধর্ষিতাকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শনিবার বিকেলে নাগরপুর উপজেলার মীরনগর গ্রামে মো. চান মিয়ার বাড়িতে এক সালিস বৈঠকে এ রায় দেওয়া হয়। আর এই জরিমানার টাকা স্থানীয় ক্লাবের উন্নয়নে ব্যয় হবে।

ইউপি সদস্য মো. হেলাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্তদের বিচারে তাদের অভিভাবকরা শাসন করেছেন। জরিমানার টাকা স্থানীয় ক্লাবের উন্নয়নে ব্যয় করা হবে।

এ ব্যাপারে নাগরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) খান হাসান মোস্তফা বলেন, এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন