মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭ ১১:১০:৩৬ পিএম

যেখানে বাবাকে বিয়ে করেন মেয়েরা!

ভিন্ন খবর | বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০১৭ | ০৪:০২:৫৬ পিএম

বিয়ে নিয়ে প্রতিটি মেয়েরই একটি স্বপ্ন থাকে। তারা চান, বাবার বাড়ি ছেড়ে নতুন পরিবেশে নতুন কোন মানুষের সঙ্গে তারা বাকি জীবনটা পার করবেন। কিন্তু সেই স্বপ্ন দেখা মানা মান্ডি উপজাতির মেয়েদের। কেননা এই সমাজে বাবাকে বিয়ে করে সেখানেই থেকে যেতে হয় তাকে। ফলে এখানে আলাদা করে স্বামীর সংসারে যাওয়ার রীতি নেই।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, বিশ্বে এরকম জায়গায়ও আছে, যেখানে বিয়ে ঠিক হয় নিয়ম আর ঐতিহ্যের আজব বেড়াজালে। মান্ডি উপজাতি অধ্যুষিত এলাকায় নিজের মেয়ের সঙ্গে স্বামীকে ভাগ করে নিতে বাধ্য হন মায়েরা।

ভারতের নাগাল্যান্ড, মেঘালয়, অাসামের বহু জায়গায় এভাবেই চলে আসছে এই প্রথা। ভারতের বিভিন্ন জায়গাতে বাস এই মান্ডি উপজাতির।

অরোলা ডাবলেট, একজন মান্ডি কন্যা। ৩০ বছরের এই যুবতী যখন খুব ছোট ছিলেন তখনই মারা যান তার বাবা। সেই সময়ে তার মা আরেকটি বিয়ে করেন। তখন থেকেই তার মায়ের দ্বিতীয় স্বামীকে নিজের স্বামী হিসাবে জানেন অরোলা। তারও স্বপ্ন ছিল কোনো একজন সুপুরুষ তার স্বামী হবেন। এই নিয়ে স্বপ্ন দেখতেও শুরু করেন তিনি। তবে আরেকটু জ্ঞান হতেই তিনি বুঝতে পারেন, স্বপ্ন দেখার অধিকারটুকু পর্যন্ত নেই তার।

তিনি বলেন, যেদিন জানতে পারলাম বাবার সঙ্গে বিয়ে হবে আমার, সেদিন পালিয়ে যেতে ইচ্ছা করেছিল। এখন তার বাবার ঔরসজাত ৩ সন্তানের মা হয়েছেন অরোলা।

মান্ডি উপজাতির ঐতিহ্য অনুযায়ী, স্বামী মারা গেলে, স্বামীর পরিবারের যে কারোর সঙ্গে বিয়ে করতে পারেন স্ত্রী। মনে করা হয়, স্বামী পরিবারের হর্তা-কর্তা হলে, তিনি তার স্ত্রী ও কন্যা দুজনকেই সুরক্ষিত রাখতে পারবেন।

উল্লেখ্য, ভারত ও বাংলাদেশ মিলিয়ে মান্ডি উপজাতিভুক্ত মানুষের সংখ্যা প্রায় ২০ লাখ। চিরাচরিত রীতিতে এভাবেই পারিবারিক সম্পর্ক টিকে আছে মান্ডি উপজাতিদের মধ্যে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন