সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৩:৩৭:৪৮ পিএম

হবিগঞ্জে দিন দুপুরে ফ্ল্যাট বাসায় অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় ৭ যুবক যুবতী গ্রেফতার

জেলার খবর | হবিগঞ্জ | রবিবার, ২৩ জুলাই ২০১৭ | ০১:৪৬:০৮ পিএম

দিন দুপুরে ফ্ল্যাট বাসায় দেহ ব্যবসার অভিযোগে ৪ যুবতী ও ৩ যুবককে গ্রেফতার করেছে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ।

রবিবার (২২ জুলাই) দুপুরে তাদেরকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, হবিগঞ্জ শহরের নিউ মুসলিম কোয়ার্টার এলাকার বশীর ভিলা একটি ভাড়া বাসা থেকে অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় ৭জন যুবক যুবতীকে আটক করেছে পুলিশ।

বেশ কিছুদিন ধরে ওই এলাকায় ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নিয়ে শহরের বিভিন্ন প্রান্তের খদ্দের যোগান দিয়ে আসছিল ঢাকা উত্তরা আজিমপুরের রেজাউল করিম তার সহযোগী মুন্নী আক্তার। তারা দুজনে উঠতি বয়সের যুবতী নিয়ে ওই বাসা ভাড়া করে বসবাস ও অনৈতিক কাজ চালিয়ে আসছিল।

গোপণ সংবাদের ভিত্তিতে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ইয়াছিনুল হকের নেতৃত্বে এসআই সুমন চন্দ্র হাজরা, এসআই অরুপ কুমার চৌধুরী, এসআই মোস্তাক, এএসআই হরিধন, এএসআই সৌরভ এএসআই আব্দুল হাকিম, এএসআই অমিতা সহ একদল পুলিশ নিউ মুসলিম কোয়ার্টারের ওই বশীর ভিলা’য় অভিযান চালায়।

এ সময় অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় ঢাকা উত্তরা,আজিমপুরের পতিতা দালাল রেজাউল করিম (২৮) ও তার স্ত্রী যৌনকর্মী মুন্নী আক্তার (২৬), বানিয়াচং উপজেলার আতুকড়া গ্রামের নীলমণির কন্যা আয়েশা আক্তার (২০), বাহুবল উপজেলার তারাপাশা গ্রামের কিম্মত আলীর কন্যা জামিলা আক্তার মীম (২০) ও একই গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা মৃত আলফু মিয়ার কন্যা তুহিনা আক্তার মাহী (২২), হবিগঞ্জ শহরের শ্যামলী এলাকার আব্দুল মন্নানের পুত্র আবদুল মোতালিব (২২), শহরের ইনাতাবাদ গ্রামের মৃত আব্দুল মোতালিবের পুত্র আহম্মদ আলী কে (৩০) পুলিশ গ্রেফতার করে এবং ভবনের বিভিন্ন কক্ষে তল্লাশি চালিয়ে বেশকিছু জন্ম নিয়ন্ত্রক কনডম উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

এদিকে, বিকালে পুলিশ আটক খদ্দের ও যৌনকর্মীদের কে হবিগঞ্জ কোর্টে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুয়েল সাংমা অভিযুক্ত ৪ যৌনকর্মীক ১৫ দিনের কারাদণ্ড ও ৩ খদ্দের কে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দন্ডিত করেন। পরে পুলিশ দন্ডিতদের জেল হাজতে প্রেরন করে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন