বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ০৭:২৩:১১ এএম

রাজধানীতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জংগী সংগঠন আনসার আল ইসলাম’র সদস্য গ্রেপ্তার

নগর জীবন | বৃহস্পতিবার, ৩ আগস্ট ২০১৭ | ০২:৪৬:১০ পিএম

রাজধানীর রমনা এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত আনসার আল ইসলাম(ABT) এর সক্রিয় সদস্য এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপি’র কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এর সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ।

গতকাল বুধবার বিকেল ৫টার দিকে কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এর সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ এর উপ-পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ আলিমুজ্জামান এর সার্বিক নির্দেশনায় অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার জনাব মিশুক চাকমা এর তত্ত্বাবধানে সোশ্যাল মিডিয়া মনিটরিং টীমের অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ নাজমুল ইসলাম নেতৃত্বে অভিযানটি পরিচালনা হয়।অভিযান পরিচালনা করে গ্রেফতারকৃত যুবকের নাম মোঃ খায়রুজ্জামান(২২)।

ডিএমপি’র কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এর সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, অভিযুক্ত খায়রুজ্জামান নিষিদ্ধ ঘোষিত জংগী সংগঠন আনসার আল ইসলাম এর সদস্য বলে দাবি করে এবং জিহাদের মাধ্যমে খিলাফত কায়েমের চেস্টা কে সমর্থন করে আসছিলেন ।

তার নিজ জিলা টাঙ্গাইল হলেও সে বগুড়া থেকে প্যারামেডিক্যাল এ পড়াশুনা করে এবং গাজিপুর এ একটি গার্মেন্টস ফাক্টরিতে সহযোগী ডাক্তার হিসেবে কাজ করে। সে তার দুইটি ফেসবুক আই ডি এবং চারটি পেজ থেকে জঙ্গীবাদের সমর্থনে নানান প্রোপ্যাগান্ডা ছড়ান এবং প্রাথমিক রিক্রুইটমেন্ট এর কাজ করে থাকেন। ফেসবুক এর মাধ্যমে সে জঙ্গী অর্থায়নের জন্য আহবান করে থাকে।গ্রেফতারের পর তার কাছ থেকে মোবাইল ফোন সেট উদ্ধার করা হয় এবং জংগী কর্মকাণ্ডে ব্যবহৃত ফেসবুক প্রোফাইল এবং পেইজ গুলো জব্দ করা হয়।

কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এর সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ অনেক দিন ধরে পরিচালিত সাইবার পেট্রোলিং এর মাধ্যমে এই জঙ্গী এর সন্ধান পায় এবং গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় বলেও জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এর সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ নাজমুল ইসলাম জানান, আসামীর বিরুদ্ধে ডিএমপি এর রমনা থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ও সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা করা হয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন