বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৯:০৩:৫৮ পিএম

চুল ও স্বাস্থ্যের যত্নে আমলকির ব্যবহার

লাইফস্টাইল | শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ০১:০৬:২২ পিএম

চুলের যত্নে মানুষ কত কিছুই না করে, এ জন্য পার্লারে গিয়ে প্রচুর টাকা ঢালতেও অনেকের কার্পণ্য নেই। এ ক্ষেত্রে কিছু খাবার নিয়মিত খেলে বেশ উপকারে আসে। চুল হয়ে ওঠে উজ্জ্বল, গোড়া হয় মজবুত। এতে চুল পড়া বন্ধ হয়, চুল দেখতেও হয় সুন্দর। চুল পড়া একটি সাধারণ ঘটনা। কিন্তু অত্যধিক চুল পড়াটা আবার ভালো নয়। আমলকি চুলের জন্য সবচেয়ে পুষ্টিকরী একটি উপাদান। আমলকি কাঁচা, চূর্ণ বা তেল হিসাবেও ব্যবহার করা যায়। এটি একটি প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসাবে কাজ করে এবং চুল জোরদার ও শক্তিশালী তৈরি করে।

দেশীয় ফল হিসেবে আমলকি সবার কাছেই পরিচিত। এটি দামে যেমন সস্তা ও সহজলভ্য, তেমনি এর রয়েছে নানাবিধ উপকারিতা। চলুক জেনে নেয়া যাক মৌসুমী এই ফলটি আমাদের কি কি উপকার করে থাকে।

আজ আমরা চুলের যত্নে আমলকির ১১ টি ব্যবহারের কথা জানব-

১. চুল বৃদ্ধি

আমলকী চুলের টনিক হিসেবে কাজ করে এবং চুলের পরিচর্যার ক্ষেত্রে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এতে ভিটামিন, মিনারেল এবং খনিজের পুষ্টি উপাদান রয়েছে। এটি কেবল চুলের গোড়া মজবুত করে তা নয়, এটি চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে।

২. প্রাকৃতিক চুল কন্ডিশনার

চুলের পুষ্টি এবং চুলকে শক্তিশালী করতে আমলকির বিকল্প কিছু নেই। আমলকি চুলের কন্ডিশনার হিসাবেও কাজ করে। যার ফলে চুল হয়ে উঠে চকচকে আর আকর্ষণীয়।

৩. খুসকি দূর করে

আমলকি ব্যবহারের ফলে চুলের খুসকী দূর হয়ে যায়। এত থাকা ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ ডান্ড্রিয়াম আক্রমন বাধা দেয় ও পাকা চুল প্রতিরোধ করে।

৪. স্কাল্প সংক্রামক

মাথার ত্বক পরিষ্কার করার জন্য আমলা রস খুবই চমৎকার। এটি মাথার খুলি এবং চুল চকচকে করে তোলে।

৫. চুল পড়া রোধ করে

আয়ুর্বেদ মতে, অতিরিক্ত চুল পড়া রোধ করতে আমলকির ভূমিকা অপরিসীম।

৬. চুল শক্তিশালী

আমলকির রস ত্বক এবং চুল উভয়ের জন্য একটি উপকারী টনিক হিসাবে কাজ করে। এটি চুলকে শক্তিশালী করে তোলে।

৭. অ্যান্টি অক্সিডেন্ট

আমলকি শরীরের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট হিসেবেও ভালো কাজ করে।

৮. প্রাকৃতিকভাবে চুলকে চকমক করে তোলে

নিয়মিত আমলকি ব্যবহারে চুল প্রাকৃতিক ভাবেই অনেক সুন্দর এবং সাইনি হয়ে উঠে।

৯ . চুলের ঘনত্ব

আমলকির পুষ্টি এবং অন্যান্য উপকারী উপাদানের কারণে নিয়মিত আমলকির রস পান করলে আপনার চুল ঘন হয়ে উঠে।

১০. ভঙ্গুর চুল প্রতিরোধ করে

আমলকি চুলের শুষ্কতা প্রতিরোধ করে এবং আর্দ্রতা পুনরুদ্ধার করতে সহায়তা করে। এটি মৃত কোষগুলিও সরিয়ে দেয়।

১১. চুলের রং বাড়ানো

আমলা সাধারনত মেহেদির সাথে মিশিয়ে ব্যবহার করা হয়, যার ফলে চুলের রং প্রাকৃতিকভাবেই আরো উজ্জল দেখায়।

এছাড়াও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আমলকির কিছু উপকারিতা নিচে দেয়া হল-

* আমলকি ভিটামিন সি এর একটি অন্যতম উত্স। প্রতিদিন ১/২টি আমলকি আপনাকে ভিটামিন সি-এর অভাবজনিত রোগ থেকে দূরে রাখবে। একই সঙ্গে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করবে।

* নিয়মিত আমলকি খেলে পেটের আলসার দূর হয়। এছাড়া আমলকির রস কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে ও পাইলস রোগ থেকে মুক্তি দেয়।

* খাওয়ার আগে মাখন ও মধুর সঙ্গে আমলকির গুঁড়া মিশিয়ে খেলে ক্ষুধামন্দা দূর হয়।

* দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে আমলকি খুবই উপকারী। এছাড়া চোখ লাল হওয়া, চুলকানো ও চোখ দিয়ে পানি পড়া রোধেও আমলকি বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

* দীর্ঘমেয়াদী কাশি-সর্দির জন্য আমলকির নির্যাস উপকারী।

* দেহের অতিরিক্ত মেদ দূর করতে আমলকি কার্যকরী।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন