বুধবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৭ ০১:২১:১৮ পিএম

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা চেষ্টা ভন্ডুল করে দিল যেভাবে

জাতীয় | রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ১০:৩১:৪১ এএম

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর মতোই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তার দেহরক্ষীরা হত্যার চেষ্টা করেছিলেন এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বস্ত ও কাউন্টার টেররিজমের কর্মকর্তারা ওই চেষ্টাকে ভণ্ডুল করে দিয়েছিলেন বলে দাবি করা হয়েছে ইয়াহু নিউজের এক সংবাদে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ১৮ এর বরাত দিয়ে শনিবার ইয়াহুতে প্রকাশিত ওই সংবাদে বলা হয়েছে, চার সপ্তাহ আগে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার ওই পরিকল্পনা করেছিলেন তার দেহরক্ষীরা।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) সাতজন সদস্য ২৪ আগস্ট প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী অফিস থেকে বের হলেই তাকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়। ঢাকার দুটি সূত্র এবং বাংলাদেশের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ভারতের দুটি সূত্র থেকে তথ্য পাওয়ার কথা পাওয়ার কথা দাবি করেছে সংবাদমাধ্যমটি।

বাংলাদেশের ন্যাশনাল সিকিউরিটি ইন্টেলিজেন্সের (এনএসআই) এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমটিকে জানায়, জামায়াত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশের জঙ্গিদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তারা শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করেন। তাদের পরিকল্পনা ছিল, প্রধানমন্ত্রীর অফিসের চারপাশে কিছু বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিরাপত্তাকর্মীদের নজর অন্যদিকে ঘুরিয়ে ঘাতকরা তাদের কার্যসিদ্ধ করবে।

প্রধানমন্ত্রীর অফিসের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত অপর এক নিরাপত্তা কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমটিকে বলেন, ইন্দিরা গান্ধীকে যেভাবে হত্যা করা হয়েছে ঠিক সেভাবেই হত্যার পরিকল্পনা করা হয় শেখ হাসিনাকে। জঙ্গিদের সমর্থনে কিছু বিশ্বাসঘাতক দেহরক্ষী এ কাজটি করতে চেয়েছিলেন। জেএমবি’র জঙ্গি ও দেহরক্ষীদের মধ্যকার ওই যোগাযোগের বিষয়টি জানতে পারে বাংলাদেশ ও ভরতের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। এরফলে ওই হত্যাচেষ্টাকে ভণ্ডুল করে দিতে সক্ষম হন তারা।

ঘটনাটি গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের নজরে আসার পর প্রধানমন্ত্রীকে তার অফিসের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয় এবং তাকে হত্যার পরিকল্পনায় জড়িতদের আটক করা হয় বলে জানানো হয়েছে ওই সংবাদে। এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমটিকে জানান, খুব বিচক্ষণতার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা চেষ্টাকে প্রতিহত করা হয়। এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত সকলকেই আমরা আইনের আওতায় নিয়ে আসতে চেয়েছিলাম। প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা চেষ্টার পরিকল্পনার অভিযোগে আটক সন্দেহভাজনদের এখনও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে একটি সূত্র সংবাদমাধ্যমটিকে নিশ্চিত করেছে।

তবে সংবাদমাধ্যমটির পক্ষ থেকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং দিল্লিতে বাংলাদেশ দূতাবাসে যোগাযোগ করা হলে কেউই মন্তব্য করতে রাজি হননি। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে যোগাযোগ করা হলে তারা এ ঘটনাকে বাংলাদেশের ইস্যু বলে উল্লেখ করে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানায়। ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতা গ্রহণের পর এ পর্যন্ত তাকে মোট ১১ বার হত্যার চেষ্টা করা হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন