শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:১৮:৫২ পিএম

শেরপুরে আন্তঃকলেজ আদিবাসী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

জাহিদুল খান সৌরভ | জেলার খবর | শেরপুর | মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৭ | ১২:৪৪:৫৯ পিএম

'নিজস্ব সংস্কৃতির বুননে রচি সাম্যের ইতিহাস' স্লোগানকে ধারণ করে শেরপুরে আন্তঃকলেজ আদিবাসী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার শহরের ডাঃ সেকান্দর আলী কলেজ মিলনায়তনে সংসদীয় ধারার এ বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করে নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগ।

বাংলাদেশ ডিবেট ফেডারেশন-বিডিএফ এবং শেরপুর ডিসট্রিক্ট ডিবেট ফেডারেশন (এসডিডিএফ) এতে কারিগরি সহায়তা প্রদান করে। এ বিতর্ক প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে আদিবাসীদের সাংবিধানিক স্বীকৃতি ও সমতলের আদিবাসীদের জন্য পৃথক মন্ত্রণালয়ের দাবি উত্থাপিত হয়। প্রতিযোগিতায় স্থানীয় আদিবাসী শিক্ষার্থীদের একটি দলসহ তিনটি কলেজের ছয়টি দল অংশগ্রহণ করে।  বিকেলে ফাইনালে 'নিজেদের মাঝে সমঝোতাহীনতাই আদিবাসীদের অধিকার রক্ষার অন্তরায়' এই প্রস্তাবের পক্ষে সরকারি দল হিসেবে শেরপুর সরকারি কলেজ ডিবেটিং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন ও বিরোধীদলে থাকা আদিবাসী বিতর্ক দল রানারআপ হয়। ফাইনালে স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন বিডিএফ ওল্ড ঢাকা কোরডিনেটর, এআইএসডিএফ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি আমির হোসেন, বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এসডিডিএফ সম্পাদক ইমতিয়াজ চৌধুরী শৈবাল ও সদস্য বরকত উল্লাহ।

সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হন শেরপুর সরকারি কলেজ ডিবেটিং ক্লাবের দলনেতা (প্রধানমন্ত্রী) রিদুয়ান ইসলাম। আমন্ত্রিত অতিথিরা চ্যাম্পিয়ন, রানারআপ ও সেরা বিতার্কিকের হাতে পুরস্কার হিসেবে ক্রেস্ট এবং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী সকল দলের সদস্যদের উপহার হিসেবে বই তুলে দেন। জেলা জনউদ্যোগের সদস্য সচিব হাকিম বাবুলের সঞ্চালনায় প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডা. সেকান্দর আলী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ শহীদুল ইসলাম মুকুল, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেরপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড. রিয়াজুল হাসান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনউদ্যোগের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব তারিক মিঠুল, সহকারী অধ্যাপক শিব শংকর কারুয়া, প্রভাষক শওকত হোসেন, জনউদ্যোগ শেরপুরের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ, জেলা মানবাধিকার কমিশনের যুন্ম সম্পাদক শামীম হোসেন প্রমুখ ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন