রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৭ ০২:৪৫:৪৩ পিএম

বিস্কুট চুরির অভিযোগ, ৭০ বছরের বৃদ্ধকে খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতন

জেলার খবর | জামালপুর | মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৭ | ১১:০২:০২ এএম

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বিস্কুট চুরির অভিযোগে সুরুজ মিয়া (৭০) নামের এক বৃদ্ধকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার উপজেলার রুদ্র বয়ড়া একুশের মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের ডিগ্রীবন্দ গ্রামের বাসিন্দা সুরুজ মিয়া গতকাল বেলা সাড়ে ১১টায় পাশের পোগলদিঘা ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামে জামাইয়ের বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশে রওনা দেন। পথে রুদ্র বয়ড়া একুশের মোড়ে এলে মুদিদোকানি রাশেদুল ইসলাম (৩৫) পথিক সুরুজ মিয়াকে বিস্কুট চুরির অভিযোগে দোকানের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে মারধর করেন। একুশের মোড়ের মুদিদোকানি রাশেদুল ইসলাম পোগলদিঘা ইউনিয়নের মোনারপাড়া গ্রামের আবু বকরের ছেলে।

পথচারী তৌকির আহমেদ জানান, বৃদ্ধ লোকটিকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করতে দেখে মোটরসাইকেল থেকে নেমে গিয়ে বাঁধন খুলে তাঁকে উদ্ধার করেন।

একুশের মোড়ের বাদশা মিয়া (৬৫) বলেন, ‘বয়স্ক একজন লোককে খুঁটিতে বেঁধে মারধর করতে দেখেছি।’

নির্যাতনের শিকার সুরুজ মিয়া বলেন, জামাইয়ের বাড়িতে যাওয়ার সময় দোকানদার রাশেদুল পথে তাঁকে ডাক দেন। তারপর তাঁর হাতে পাঁচ টাকার এক প্যাকেট বিস্কুট ধরিয়ে দেন। তারপর সেটি চুরি করেন বলে খুঁটিতে বেঁধে মারধর শুরু করেন। বৃদ্ধ আরও বলেন, ‘রাস্তার লোকজন আমার কাঁনদন দেইখে মারধরের হাত থেকে ছাইরে দেয় (বাঁধন খুলে দেয়)।’

অভিযুক্ত দোকানদার বলেন, ওই বৃদ্ধ দোকানের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় তাঁর (দোকানদারের) অন্যমনস্কতার সুযোগে কৌটা থেকে বিস্কুট চুরি করেন। তাই তাঁকে কয়েকটি চড়-থাপ্পড় দিয়েছেন।

তারাকান্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই আফতাব উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। তিনি আরও বলেন, স্থানীয়ভাবে এটা মীমাংসা করা হয়েছে।

তারাকান্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক (তদন্ত) জোয়াহের হোসেন খান বলেন, ‘ঘটনা শুনেছি। পুলিশও পাঠিয়েছিলাম। কাউকে পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন