রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৭ ০২:৫৫:০১ পিএম

শুরু হচ্ছে কুমিল্লা-নোয়াখালী সড়কে ফোর লেনের কাজ

জেলার খবর | কুমিল্লা | মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০১৭ | ১০:৫৬:০০ এএম

খুব শীঘ্রই শুরু হচ্ছে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কে ফোরলেনের কাজ। কুমিল্লা নগরীর (টমছমব্রিজ-নোয়াখালী বেগমগঞ্জ) পর্যন্ত আঞ্চলিক মহাসড়কের ফোরলেন প্রকল্পের কাজ শুরু হচ্ছে।

কুমিল্লা সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী মোফাজ্জল হায়দার জানান, আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই এ আদেশ জারি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি বলেন, প্রশাসনিক আদেশ জারির পর পরই টেন্ডার আহ্বান করা হবে। এরপরই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন শুরু হবে। এতে করে নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, কুমিল্লার দক্ষিণাঞ্চল লাকসাম, নাঙ্গলকোট, বরুড়া, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ ও মনোহরগঞ্জের কয়েক লাখ মানুষ যাত্রী সাধারণের দুর্ভোগ লাগব হবে।

এদিকে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কে যাত্রীদের দুঃসহ যন্ত্রণা ও দুর্ভোগ কমাতে মহাসড়কটিতে সংস্কার চলছে। ফোরলেন প্রকল্পের অনুমোদন ও অতিদ্রুততর সময়ের মধ্যে কাজ শুরুর সম্ভাবনা রয়েছে। কুমিল্লা সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের মতে কুমিল্লার- নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড় ভাঙাচোরা থাকলেও তা ফেলে রেখে যায় না। জনদুর্ভোগ কমিয়ে আনতে পাশাপাশি সংস্কার কাজ চালিয়ে নেয়া হচ্ছে।

এদিকে প্রায় সারা বছর যাবৎ আঞ্চলিক মহাসড়কটিতে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে সংস্কার কাজ। সারা বছর সংস্কার চললেও মান সম্পর্ণ সংস্কার ও মেরামত না হওয়ার কারণে টেকসই নেই, যার ফলে সারা বছর সংস্কার চললেও মানহীন সংস্কারের কারণে বছরজুড়েই খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়াও এ সড়কে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। যার ফলে এ সড়কটিতে প্রতিনয়ত আটকা পড়ছে কাভার্ডভ্যান, বাস, মিনিবাস, ট্রাক, সিএনজি অটোরিকশাসহ সব ধরনের যানবাহন। পূর্বে কুমিল্লার জাঙ্গালিয়া বাস টার্মিনাল থেকে মাত্র ৪৫ মিনিটে লাকসাম পৌঁছা গেলেও এখন তাতে সময় লাগছে পৌনে তিন ঘণ্টা থেকে তিন ঘণ্টা। এতে করে দুর্ভোগে পড়ছে নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, কুমিল্লার দক্ষিণাঞ্চলের লাকসাম, নাঙ্গলকোট, বরুড়া, সদর দক্ষিণ ও মনোহরগঞ্জের কয়েক লাখ যাত্রী সাধারণ।

উল্লেখ্য, গত ২৪ অক্টোবর পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক বৈঠকে অনুষ্ঠিত হয়। ঐ বৈঠকেই কুমিল্লা নগরীর (টমছমব্রিজ-নোয়াখালী বেগমগঞ্জ) পর্যন্ত এ আঞ্চলিক মহাসড়কের ফোরলেন প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়। প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার ১৭০ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। যার মেয়াদকাল ২০১৭ সালের জুলাই মাস থেকে ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত। প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে কুমিল্লা সড়ক ও জনপথ অধিদফতর।

এতে বিশেষ করে নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, কুমিল্লার দক্ষিণাঞ্চল লাকসাম, নাঙ্গলকোট, বরুড়া, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ ও মনোহরগঞ্জের কয়েক লাখ মানুষ যাত্রী সাধারণের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন