মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৮ ০৮:১৯:৫৭ এএম

কোহলির শরীরচর্চার সেরা ঝলক,যা আপনাকে মোটিভেট করতে বাধ্য

খেলাধুলা | শনিবার, ১১ নভেম্বর ২০১৭ | ০৫:০১:৩৩ পিএম

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি বরাবরই ফিটনেস সচেতন৷ পরিমিত ডায়েট,বেশী করে জল, আর নিয়ম করে জিমে কঠোর অনুশীলন করেন কোহলি৷
সেই অনুশীলনে নেই কোনও বিশ্রাম৷ এমন কী একাধিকবার সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে কোহলিকে বলতে শোনা গিয়েছে ‘সিরিজ চলাকালীন NO OFF DAY’ অর্থ্যাৎ সিরিজ চলাকালীন বাইশ গজে প্রস্তুতি সাড়তে না পারলে চলে এসো জিমে৷ কিন্তু নো বিশ্রাম, নো ফাঁকি৷ নিয়ম করে ফিটনেস ট্রেনারের সামনে নিজের রুটিন এক্সারসাইজগুলো সেড়ে ফেলতে হবে অফ ডে-র দিনেও৷ এটাই কোহলির সাফল্যের মূলমন্ত্র৷

শুধু নিজেই নন, ফ্যানেদেরকেও সবসময় শরীর সচেতন হতে বলেন কোহলি৷ সদ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় কোহলি, আউটডোর স্পোর্টসে বিশেষ গুরুত্ব দিতে আবেদন করেছেন৷ অনুরোধ করেছেন সবাই যেন নিময় করে খেলাধূলা ও শরীর চর্চায় একটু মন দেয়৷

এমন কী ইস্টাগ্রামে নিজের ওয়ার্কআউটের স্টিল কিনবা ভিডিও পোস্ট করে ফলোয়ার্সদের মোটিভেট করেন বিরাট৷ সেই ছবিগুলোর মধ্যেই রইল বাছাই করা কোহলির সেরা কয়েকটি ওয়ার্কআউট দৃশ্য, যা আপনাকে অবশ্যই শরীর চর্চা করার জন্য মোটিভেশন জোগাবে৷ শরীরকে ফিট রাখার জন্য কোহলি কীরকম কঠিন পরিশ্রম করে রইল তারই কিছু ঝলক।

ফিটনেস ট্রেনিংয়ের ছবিগুলির কোনটিতে ভার উত্তোলন করছেন কোহলি, কোনটিতে আবার ট্রেডমিলে দৌড়চ্ছেন৷ আবার কোনটিতে মর্নিং সেশন কার্ডিও এক্সারসাইজ দিয়ে দিন শুরু করছেন৷ তবে শুধু ফিটনেসের ছবি পোস্ট করেই থেমে থাকেননি বিরাট৷ প্রতিটি পোস্টের সঙ্গে রয়েছে মোটিভেশনাল কিছু উক্তি৷

ফলোয়ারদের উদ্বুদ্ধ করে কোথাও কোহলি লিখেছেন,‘রেস্ট ডে মানে আসলে নিজের সঙ্গে চিটিং করা৷ পরিশ্রমের ফাঁকে রেস্ট বলে কিছু হয় না৷’ কখনও আবার লিখেছেন, ‘বন্ধুরা পরিশ্রম করা থামিও না,লড়াই করে যাও৷’ একধাপ এগিয়ে অন্য এক ভিডিও ’তে লিখেছেন, ‘এটাই আমার রুটিন,সকালে উঠে জিমে সময় কাটানোর চেয়ে আর কিছু সুখকর হতে পারে না৷’ কোহলির এমন ফিটনেট ট্রেনিংয়ের ছবি দেখলে আপনিও উদ্বুদ্ধ হতে বাধ্য৷

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন