শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ ১১:২০:১১ এএম

পথে পথে ‘পুলিশের বাধা’, বিএনপির ৫৫ নেতাকর্মী আটক

রাজনীতি | রবিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৭ | ০১:৪৭:১৫ পিএম

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশে অংশ নিতে ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলা থেকে আগত দলটির নেতাকর্মীরা পুলিশি বাধার মুখে পড়ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এখন পর্যন্ত গাজীপুরে ৪৮ ও সাভারে ৭ বিএনপির নেতাকর্মীকে গ্রেফতারের খবর পাওয়া গেছে। সেই সঙ্গে মহাসড়কে ট্রাক রেখে ব্যারিকেড দিচ্ছে পুলিশ।

গাজীপুর প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম জানিয়েছেন, বিএনপির সমাবেশকে ঘিরে গাজীপুরের বিএনপির নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যে সমাবেশে যোগ দিতে ট্রেনসহ বিভিন্ন যানবাহনে এখন ঢাকামুখী। অনেকেই রাতে ঢাকায় পৌঁছেছেন বলে দাবি স্থানীয় বিএনপির। তবে এ সমাবেশকে সামনে রেখে বিভিন্ন অভিযোগে বিএনপির ৪৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ, চলছে রাজপথে পুলিশের তল্লাশি।

ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে সীমিত পরিসরে যানবাহন চলাচল করছে। অন্যান্য দিনের মতো গণপরিবহনের বাড়তি চাপ নেই। এ কারণে ঢাকাগামী যাত্রীদের দুর্ভোগ রয়েছে চরমে। তবে রাস্তায় পুলিশের সতর্ক অবস্থান থাকলেও কোনো ব্যারিকেড দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে না বলে দাবি পুলিশের। যাত্রীদের জানমালের নিরাপত্তা ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান করছেন তারা।

এদিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার খাড়াজোড়া এলাকায় দুটি ট্রাক আটক করে মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন চলাচল করতে বাধার সৃষ্টি করেছে পুলিশ।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে এক ট্রাক হেলপার জানান, একটি ট্রাকে পাথর ভর্তি করে টাঙ্গাইল থেকে ঢাকার দিকে যাচ্ছিলেন তারা। ভোর ৬টার দিকে মহাসড়কের খাড়াজোড়া এলাকায় পুলিশ তল্লাশির নামে চালককে ট্রাক থেকে নামিয়ে চন্দ্রার দিকে নিয়ে যায়। এবং ওই ট্রাক দিকে মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে রাখে। এছাড়া ওই স্থানে আরও একটি খালি ট্রাক রাখা হয়েছে।

তবে বেলা সাড়ে ১১টার পর পুলিশ মহাসড়ক থেকে ট্রাক দুটি সরিয়ে নিলে মহাসড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

কোনাবাড়ী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ হোসেন সরকার জানান, মহাসড়কে গাড়ীর চাপ সকাল থেকেই কম রয়েছে। তবে মহাসড়কে ট্রাক রাখার বিষয়ে থানা পুলিশ বলতে পারবে।

এ ব্যাপারে কালিয়াকৈর থানার ডিউটি অফিসার শিল্পী আক্তার জানান, রাস্তার ট্রাক দিয়ে ব্যারিকেডের বিষয়ে তিনি কিছুই জানে না।

বিএনপি কর্মীদের আটক

গাজীপুরের ৬টি থানা এলাকা থেকে বিভিন্ন অভিযোগে ৪৮ জন বিএনপির নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে সমাবেশকে কেন্দ্র করে আশুলিয়ার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপির ৭ নেতাকর্মীকে আটক করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ। বাসে করে বিএনপির নেতাকর্মীরা সমাবেশে যাচ্ছে এমন অভিযোগে পুলিশ ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আমিনবাজার, আশুলিয়া বাজার এলাকায় ঢাকামুখী পয়েন্টে যানবাহনে তল্লাশি চালাচ্ছে, এছাড়া পুলিশ যাত্রীদের গাড়ি থেকে নামিয়ে দিচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রোববার ভোর রাতে আশুলিয়া বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপির সাত নেতাকর্মীকে আটক করা হয়। তবে এসব বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের কোনো কর্মকর্তা কথা বলতে রাজি হয়নি।

উল্লেখ্য, রোববার দুপুর ২টায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। এতে দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।
এই সমাবেশের মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ১৯ মাস পর রাজধানীতে জনসভা করতে যাচ্ছে বিএনপি। এ সমাবেশের মাধ্যমে নিজেদের জনপ্রিয়তা বা জনসমর্থনের বিষয়টি জানান দিতে চায় দলটি।

সর্বশেষ, ২০১৬ সালের ১ মে শ্রমিক দিবস উপলক্ষে শ্রমিক সমাবেশ করে বিএনপি। এর আগে ওই বছরের ৫ জানুয়ারি নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করার সুযোগ পায় দলটি।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির সংসদ নির্বাচনের দুই বছর পূর্তিতে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে সেই সমাবেশ করে বিএনপি। শ্রমিক দল এর আয়োজন করে।
আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে নিজেদের জনসমর্থন জানান দিতে ১২ নভেম্বরও (রোববার) ব্যাপক লোক সমাগম ঘটাতে চায় দলটি।

-সূত্র: পরিবর্তন ডটকম।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন