শনিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৭ ০৯:৪৭:৩৮ পিএম

বিএনপি সমর্থক ছাত্র মাভাবিপ্রবি ছাত্রলীগের নেতা!, ফেসবুকে ভাইরাল, উত্যপ্ত ক্যাম্পাস

জেলার খবর | টাঙ্গাইল | বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৭ | ১১:৪৫:৩৫ এএম

গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে প্রহসনের নির্বাচন দাবি করে তা প্রতিরোধের আহবান জানানো বিএনপি সমর্থক এক ছাত্র মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নব-গঠিত ছাত্রলীগের কমিটিতে স্থান পাওয়ার অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ক্যাম্পাস।

এ নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে চরম উত্তেজনা। ছাত্রলীগের একটি অংশ অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতাকে বহিস্কারের দাবি তুলেছে।

জানা যায়, গত ৯ অক্টোবর প্রথমবারের মত বাংলাদেশ ছাত্রলীগ মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেয়। সংগঠনের অফিসিয়াল ওয়েভসাইটে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক স্বাক্ষর সংবলিত আপলোডকৃত কমিটির ছবিতে এ তথ্য পাওয়া যায়। এ কমিটিকে ১ বছরের জন্য অনুমোদন করে কেন্দ্রিয় কমিটি।

কমিটি গঠনের মাত্র ৩৬ দিনের মাথায়ই অভিযোগ উঠে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রাজীব মোল্লার বিরুদ্ধে। ২০১৩ ও ২০১৪ সালে রাজীব মোল্লা তার নিজের ফেসবুক আইডির মাধ্যমে দলীয়ভাবে সক্রিয় ছিল, তবে আওয়ামী লীগের নয় বিএনপি’র কর্মী হিসেবে এমন কিছু ফেসবুক পোষ্ট ভাইরাল হয়ে যায় হঠাৎ করেই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাজীব মোল্লার পূর্বের কর্মকান্ড ভাইরাল হওয়ার পরেই উত্তপ্ত হয়ে উঠে ক্যাম্পাস। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। তারা রাজীব মোল্লাকে বহিস্কার করার দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল করে।

অভিযোগের বিষয়ে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রাজীব মোল্লা বলেন, অভিযোগটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

এটা আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় করতেই করা হচ্ছে। যে স্কিন শর্ট ভাইরাল করা হয়েছে এটা এডিট করা। এখানে যে তথ্য গুলো দেওয়া তা সবই এডিট করে দিয়েছে।

বিএনপি-জামাত শিবিরের কিছু নেতাকর্মী এ ঘটনা ঘটাচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, আমি বিষয়টি জানার পরই আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের একাংশের বিক্ষোভ মিছিল বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এরা কেউই ছাত্রলীগের নতুন কমিটির নয়। তারা ছাত্রলীগও নয়।

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সজিব তালুকার বলেন, আমি বিষয়টি শুনেছি। রাজীব এর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তার সকল স্কিনশর্ট আমি পেয়েছি। এ বিষয়ে কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পাদককে জানানো হয়েছে। তিনি বিষয়টি দেখছেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন