রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ১১:২০:১৩ এএম

ঠাকুরগাঁওয়ে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে বৃদ্ধার আঙ্গুল কর্তন

এস. এম. মনিরুজ্জামান মিলন | জেলার খবর | ঠাকুরগাঁও | বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৭ | ০৫:১৫:০৫ পিএম

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক বৃদ্ধার ডান হাতের তিনটি আঙ্গুল কর্তন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় প্রভাবশালী আব্দুল জব্বারের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় কুপিয়ে জখম করা হয়েছে আরও দুই নারীকে।

বুধবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে এই অভিযোগ করেন বৃদ্ধা সুফিয়া খাতুন।

আহতরা হলেনঃ চিলারং ইউনিয়নের মধ্যপাড়া গ্রামের ইউসুফ আলীর স্ত্রী সুফিয়া খাতুন (৬০), বৃদ্ধার ছেলে আব্দুল আলিমের স্ত্রী আলেয়া খাতুন (৩৫) এবং বৃদ্ধার মেয়ে ও নাসিরুল ইসলামের স্ত্রী আঞ্জুয়ারা বেগম (৩৮)।

আহত তিনজন নারী ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বৃদ্ধা সুফিয়া আক্তার অভিযোগ করেন বলেন, দীর্ঘ ১৭ বছর ধরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের মধ্যপাড়া গ্রামে পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত ২৪ নম্বর খতিয়ানের ৪২৭২ ও ৪২৭৩ নম্বর দাগের ১০ শতক ভোগদখল করে আসছিলেন আমার স্বামী ইউসুফ আলী। ঐ জমিতে বাড়ি ও দোকানঘর নির্মাণ করে আমরা পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছি।

গত সোমবার দুপুরে স্থানীয় প্রভাবশালী আব্দুল জব্বার ঐ ১০ শতক জমি তার দাবি করে মোফাজ্জেল হোসেনসহ বেশকিছু লোকজন নিয়ে আমাদের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় বাঁধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমাকে ও আমার বৌমা আলেয়া খাতুন, মেয়ে আঞ্জুয়ারা বেগমকে কুপিয়ে জখম করে।

পরে স্থানীয়রা আহত তিনজন নারীকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

হাসপাতালের চিকিৎসক শুভেন্দু দেবনাথ বলেন, সুফিয়া খাতুনের ডান হাতের ৩টি আঙ্গুল ধারালো কিছু দিয়ে কেটে ফেলা হয়েছে। অন্য দুই নারীকে জখম করা হয়েছে। তাদের চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি আব্দুল লতিফ মিঞা বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। সেই সাথে ঘটনার তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন