বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮ ০৮:০৯:২১ পিএম

ডিবি পরিচয়ে ফিল্মি স্টাইলে মানিকগঞ্জে কোটি টাকার স্বর্ণ লুট

জেলার খবর | বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৭ | ১২:২৯:০৩ এএম

মানিকগঞ্জ শহরের প্রানকেন্দ্রে স্বর্ণকার পট্টির নাগ জুয়েলার্সে ফিল্মি ষ্টাইলে ককটেল ফাটিয়ে ও অস্ত্রের মুখে কয়েক’শ ভরি স্বর্ণালংকার ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

ডাকাতি শেষে অস্ত্রধারী যুবকরা বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ করে বীরদর্পে একটি প্রাইভেট কার ও একটি ট্যাক্সি করে পালিয়ে যায়। ডাকাতির পুরো ঘটনা দোকানের সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে।

নাগ জুয়েলার্সের মালিক চন্দ নাগ জানিয়েছেন, তার উপস্থিতিতে আজ বুধবার রাত সাতটার দিকে এই লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

তিনি জানান, তার দোকানে প্রথমে দুই নারী কাষ্টমার প্রবেশ করে। এরপরপরই ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে ৭/৮ জন অস্ত্রধারী প্যান্ট শার্ট পরিহিত যুবক তার দোকানে অতকির্ত হানা দেয়। অস্ত্রের মুখে স্বর্ণালংকার লুট করে।

সিসি টিভির ক্যামেরায় দেখা গেছে, ওই সশস্ত্র যুবকরা ফিল্মি ষ্টাইলে রিভলবার উচিয়ে দোকানে প্রবেশ করে। একে্ একে দোকানে থাকা সকল স্বর্ণালংকার লুট করে তাদের ব্যাগে ঢুকায়। আশপাশের দোকানিরা এই ডাকাতির ঘটনা প্রত্যক্ষ করেছেন।

তবে ওই যুবকদের অস্ত্রের ভয়ে কেউিই এগিয়ে আসতে সাহস পাননি। এছাড়া জেলা শহরের সকল দোকানপাট মুহু্র্তের মধ্যে বন্ধ হয়ে যায়। সকল দোকানির মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পরে।

মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হাসান সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

নাগ জুয়েলার্সের মালিকের বড় ভাই চন্দন নাগ বলেন, এটি একটি পরিকল্পিত ডাকাতি। এর সাথে ডিবি পুলিশ জড়িত বলে তিনি দাবি করেন।

এদিকে, স্বর্ণকার মালিক সমিতির সভাপতি রঘুনাথ সরকার দাবী করেছেন কয়েকদিন আগে তাকে মানিকগঞ্জ ডিবি পুলিশের কয়েকজন সদস্য ডেকে নিয়ে অবৈধ স্বর্ণের ব্যবসার করা হচ্ছে এমন অভিযোগ এনে দুই কোটি টাকা চাঁদা দাবি করেছিল।

প্রত্যক্ষদর্শী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সুলতানুল আজম আপেল জানান, তিনি দেখেছেন একটি প্রা্ইভেটকার ও একটি ট্যাক্সিতে করে ওই সশস্ত্রধারী যুবকরা স্বর্ণালংকার লুট করে গাড়িতে উঠে পালিয়ে যায়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন