বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৮ ০২:০০:০৪ পিএম

এবার রাজনীতির পথে এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী

বিনোদন | বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৭ | ১২:৪৮:০৪ এএম

ছোট পর্দায় নিজেকে সুঅভিনেত্রী হিসেবে আগেই প্রমাণ করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। তার অভিনীত বেশ কিছু নাটক দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে। শুধু তাই নয়, ছোট পর্দার পাশাপাশি বড় পর্দায়ও সফল তিনি।

বেশ কিছু অফ ট্র্যাকের ছবিতে জ্যোতি অভিনয় করেছেন। এসব ছবিতে তার ভিন্নমাত্রার অভিনয় দর্শক ও সমালোচক মহল থেকে প্রশংসা কুড়ায়। বর্তমানে খুব বেছে নাটকে অভিনয় করছেন।

পাশাপাশি ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’ শীর্ষক কলকাতার একটি ছবিতেও চুক্তিবদ্ধ হয়ে আছেন তিনি। আসছে ডিসেম্বরে এ ছবির কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন জ্যোতি। তবে এবার এ অভিনেত্রী হাঁটছেন ভিন্ন পথে।

সরলভাবে বলতে গেলে জ্যোতি হাঁটছেন এবার রাজনীতির পথে। অভিনয়ের পাশাপাশি শাহবাগসহ বিভিন্ন আন্দোলনে জ্যোতিকে দেখা গেছে সরব ভূমিকায়। সমাজের বিভিন্ন ধরনের অসঙ্গতিতেও তাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন স্থানে সরব হতে দেখা গেছে।

পাশাপাশি মৌলবাদের বিরুদ্ধেও এ অভিনেত্রী সোচ্চার হয়েছেন বিভিন্ন সময়। সম্প্রতি তিনি যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ময়মনসিংহে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ পান। সেখানে কেক কেটে এ সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেন। আর এর মাধ্যমে রাজনীতির পথে এক ধাপ পা কি বাড়ালেন জ্যোতি?

এমন প্রশ্নে এ অভিনেত্রী বলেন, আসলে ময়মনসিংহের মানুষেরা আমাকে খুব ভালোবাসে। সব সময় সব কাজে তারা আমাকে পাশে চায়। সত্যি বলতে আমার জেলার মানুষের পাশে থাকতে আমারও অন্যরকম ভালো লাগা কাজ করে।

আমি বিভিন্ন সামাজিক কাজের সঙ্গে জড়িত। এর পাশাপাশি একজন অভিনেত্রী হিসেবেই কিন্তু যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমি প্রধান অতিথি হিসেবে ডাক পেয়েছি। সেখানে অনেক আনন্দ করে আমরা এ দিনটি উদযাপন করেছি। সত্যি বলতে আমি আমার জেলার মানুষের পাশে থাকতে চাই।

সেটা এমনিতেও হতে পারে আবার রাজনীতির মাধ্যমেও হতে পারে। তবে এখনই নয়, আমি একটু সময় নিতে চাই। আমার এলাকার মানুষজনও চান আমি রাজনীতিতে আসি। তাদের জেলার প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিই।

এটা আসলে তাদের চাওয়া। আমি চাই তাদের প্রত্যাশা যেন নষ্ট না হয়। তাই বুঝেশুনেই পথ চলতে চাই। দেখা যাক সামন কি হয়। তাহলে কি প্রস্তুতি নিচ্ছেন সেভাবেই?

জ্যোতি বলেন, প্রস্তুতিটা ভালোভাবে নিতে হয়। বলতে পারেন আমিও প্রস্তুতির মাঠেই আছি এখন। আমার জেলার মানুষের ভালোবাসা ও চাওয়াই আমাকে এ পথে এনেছে। আমি তাদের জন্য কাজ করতে চাই। তাদের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চাই।

জনকল্যাণমূলক কাজে আমি সম্পৃক্ত আছি। আরও ভালোভাবে সম্পৃক্ত হবো সামনে। দেশের প্রতি, সমাজের প্রতি ও এলাকার মানুষের প্রতি কিন্তু একটা দায়িত্ববোধ আছে সবার। সেটা যার যার জায়গা থেকে পালন করা উচিত। আমিও সেই চেষ্টাই করছি। সেক্ষেত্রে যদি রাজনীতি করতে হয় আমি পিছপা হবো না।

সামনে আমি এসব বিষয় নিয়ে আরও সক্রিয় হবো। হয়তো আগামী কয়েক মাসের মধ্যে আমি আমার লক্ষ্যটা নির্ধারণ করে আনুষ্ঠানিক ঘোষণায় যাবো। এদিকে বর্তমানে বেশ কিছু নাটকের কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন জ্যোতিকা জ্যোতি।

পাশাপাশি অপেক্ষা করছেন কলকাতার ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’ ছবিতে অভিনয়ের। বিষয়টি নিয়ে তিনি বলেন, এ ছবিতে আমি রাজলক্ষ্মীর ভূমিকায় অভিনয় করছি। এটা অনেক চ্যালেঞ্জের একটি ব্যাপার। এর জন্য আমি প্রস্তুতিও নিয়েছি বেশ।

এখন অপেক্ষায় আছি ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর। আগামী ডিসেম্বর থেকেই এ ছবির কাজ শুরু হবে। আমার বিশ্বাস দর্শক খুব ভালো একটি বাংলা ছবি পেতে চলেছে এর মাধ্যমে। এমজমিন

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন