রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৪:৩১:১৩ পিএম

জিম্বাবুয়েতে সেনা অভ্যুত্থান : আফ্রিকান ইউনিয়ন

আন্তর্জাতিক | বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৭ | ১০:৫১:৪৩ এএম

জিম্বাবুয়েতে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখল এবং প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবেকে বন্দী করার ঘটনাকে সেনা অভ্যুত্থান বলে মন্তব্য করেছে আফ্রিকান ইউনিয়ন। সংস্থার প্রধান আলফা কন্ডে অবিলম্বে সংবিধান পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবী জানিয়েছেন।

তবে যে কোনো ধরণের অভ্যুত্থানের অভিযোগ নাকচ করে সেনা বাহিনী বলছে, প্রেসিডেন্ট মুগাবে নিরাপদেই আছেন এবং প্রেসিডেন্টকে ঘিরে থাকা অপরাধীদের শায়েস্তা করতেই এই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জাকব জুমা জানিয়েছেন, জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবেকে রাজধানী হারারেতে গৃহবন্দী করে রেখেছে দেশটির সেনাবাহিনী। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, জাকব জুমাকে ফোন করে মুগাবে জানিয়েছেন, তিনি ঠিক আছেন।

মুগাবের স্থলাভিষিক্ত কে হবেন তা নিয়ে মতবিরোধ দেখা দিয়েছে। যুক্তরাজ্য থেকে স্বাধীনতা পাবার পর থেকে, অর্থাৎ ১৯৮০ সাল থেকে সবচেয়ে বেশি সময় রাষ্ট্রের ক্ষমতায় ছিলেন মুগাবে।

গত সপ্তাহে ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন এমন্যানগ্যাগওয়াকে বরখাস্ত করা হয়। ৯৩ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট মুগাবের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগে গত সপ্তাহে তাকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়। তাকে ক্ষমতাচ্যুত করার পর ফার্স্ট লেডি গ্রেসি মুগাবেকে ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করার পথ পরিষ্কার করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন দেশটির রাজনীতিকরা।

ইতোমধ্যেই মুগাবের স্ত্রী গ্রেস মুগাবে নামিবিয়াতে পালিয়ে গেছেন বলে স্থানীয় খবরে বলা হচ্ছে। তবে, মুগাবেকে গ্রামাঞ্চলের বহু মানুষ এখনো সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন।

জিম্বাবুয়ের এই রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে, সকল পক্ষকে সংযম প্রদর্শনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন