সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭ ০২:৪৩:৪৫ পিএম

আজ বিপিএলে ভয়াবহ ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে!

খেলাধুলা | শনিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৭ | ০২:২৫:০৬ পিএম

ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম ও ক্রিস গেইল ইনিংস ওপেনিংয়ে। যেকোনো বোলিং লাইন এ সংবাদে আঁতকে ওঠার কথা! শর্টার ভার্সান ম্যাচে ব্যাট হাতে দুই দানব। যেকোনো বোলারের লাইন নিশানা ভুলিয়ে দেয়ার ক্ষমতা যেকোনো একজনের। আর সে দুই ব্যাটসম্যান যদি একই ম্যাচে ইনিংস ওপেনিংয়ে নামেন, তাহলে সেটা তো আরো ভয়াবহ কথা। আজ মিরপুর শেরেবাংলায় তেমন এক ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে।

রংপুর রাইডাসের হয়ে ইতোমধ্যে খেলতে চলে এসেছেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং স্টার ক্রিস গেইল ও নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম। দুইজনেরই আইপিএল মাতিয়ে আসার রেকর্ড রয়েছে। তবে বিপিএলে এর আগে গেইল খেললেও ম্যাককুলামকে এবারই প্রথম নিয়ে এসেছে রংপুর রাইডার্স। আজ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে বেলা ১টায় মুখোমুখি হবে তারা।

ব্যাটিংয়ে দুনিয়া সেরা ওই ওপেনার আইপিএলেও এক সময় ওপেন করতেন। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ২০০৯ সালের আইপিএলে খেলেছেন তারা। সেবার দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত হয়েছিল ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটের ওই লিগ। কিন্তু ওপেনিংয়ে সুবিধা করতে পারেননি এ জুটি। বেশ কিছু ম্যাচ তারা খেললেও গেইল ও ম্যাককুলাম একই সাথে সেবার প্রত্যাশা পূরণে সমার্থ হননি সেভাবে। ফলে এবার তারা কী করবেন সেটা একটা ব্যাপার।

আগের দিন কিউই স্টার ম্যাককুলাম অবশ্য বলে দিয়েছিলেন যে গেইলের সাথে ওপেন করাটা রোমাঞ্চকর একটা বিষয়। এ আসরে তিনি দলের প্রত্যাশা পূরণের চেষ্টা করবেন। কাল গেইলও বললেন ঠিক একই ধরনের কথা।

প্রথমেই তিনি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন যে বিপিএলে তিনি আবারো যে খেলতে আসতে পেরেছেন এ কারণে। গেইল বলেন, ‘এটা আমার জন্য দারুণ একটা মুহূর্ত যে বিপিএলে আবার আমি খেলতে আসতে পেরেছি। তবে নতুন দল, নতুন পরিবেশ। এখানে সব কিছু আবারো নতুন করে শুরু করতে চাই। এবং সেটা আগামীকাল (আজ) থেকেই। আমি আশা করছি আমরা দলকে জয়ের ধারায় ফিরিয়ে নিয়ে আসতে পারবো। দলের এ মুহূর্তের প্রয়োজনও এটা।’

ম্যাককুলাম প্রসঙ্গটাও চলে আসে প্রথম ম্যাচের কথা বলতে যেয়ে। তিনি বলেন, ‘আমরা সবাই জানি কেমন ক্রিকেট খেলেন বিএম (ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম)। এটা আমার জন্য দারুণ একটা মুহূর্ত যে তার সাথে আবারো আমি ইনিংস ওপেন করতে যাচ্ছি। আমরা এর আগে আইপিএলে ওপেন করেছিলাম। এখন আবারো সে ওপেনিংয়ে আমরা। এটা যদিও আমাদের জন্য নতুন এক প্রেক্ষাপটে। তবে এটা আমাদের জন্য হবে নতুন এক অভিজ্ঞতাও।’

গেইল বলেন, ‘আমাদের এ ওপেনিং ইনিংসের কাছে প্রত্যাশা অনেক। আমরা চেষ্টা করব আমাদের সেরাটা দিয়ে। এবং পরবর্তী ম্যাচ জয়ী হতে।’ নিজের ও ম্যাককুলামের প্রসঙ্গ তুলে এ ক্যারিবিয়ান বলেন, ‘আমরা জানি গোটা বাংলাদেশই আমাদের কাছে অনেক বিনোদন আশা করছে ব্যাটিংয়ে। এটা আমাদের কাছে কেন চাপ হবে? আমরাও আশা করছি এমনটা সবার কাছ থেকে। দর্শক সবসময়ই ভালো কিছু চায়। তারা সবসময় ভালো খেলারও পক্ষে। এটা দারুণ একটা মুহূর্ত হবে আমাদের জন্যও। যদি আমরা আমাদের মতো করে সূচনাটা করতে পারি। আমরা একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকাবো। অপর পক্ষ শুধু হিসেব কষবে টোটাল কত হলো!’

বরিশাল বুলসের হয়ে আগে খেলে গেছেন। এবার বিপিএলেই নেই বরিশাল। তবে গেইল জানেন, এখানকার দর্শক প্রত্যাশার কথা। তিনি বলেন, ‘আসলে আমি বেশিরভাগ সময় ব্যাট হাতে খেলতে নামি দর্শকদের আনন্দ দেয়ার জন্যই। কারণ দর্শকেরা অর্থ খরচ করে আসেন খেলা দেখতে। ফলে তারা চান ভালো কিছু। যা দেখে তারা সন্তুষ্ট হবেন। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করি বেশি বেশি ছক্কা হাঁকানোর জন্য। যখন এটা সব কিছু ঠিকমতো হতে থাকে, তখন দর্শকেরাও খুবই খুশি হন।’

রংপুর রাইডাসের প্রথম খেললেও দল সম্পর্কে গেইলের পর্যালোচনা হয়ে গেছে। প্রশংসা করেন তিনি মাশরাফি বিন মোর্তুজার। তিনি বলেন, মোর্তুজা অনেক অভিজ্ঞ দল পরিচালনা করার ক্ষেত্রে। তা ছাড়া দলের বোলিং স্কোয়াডও চমৎকার। আমাদের দলে রয়েছে মি. বোপারা। সেও দারুণ এক খেলোয়াড়। আমরা প্রতিটা খেলোয়াড়ের ওপরই ভরসা করতে পারি। তাদের সে যোগ্যতাও রয়েছে। এটা নয় যে শুধু নির্ভর করতে হবে গেইল বা ম্যাককুলামের ওপর। অন্যরাও এর আগে অনেকবার ম্যাচ জিতিয়েছেন।’

আজকের ম্যাচ প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, ‘আসলে এ ম্যাচ থেকেই আমি ছক্কার পর ছক্কা হাঁকাবো এমনটা ঠিক নয়। সূচনাটা আমি ভালো করতে চাই। কারণ টুর্নামেন্টে আগে সেট হতে হবে। সে জন্য শুরুটা ভালো হওয়া চাই।’ গেইল এসেই যে নেমে যাচ্ছেন তা নয়। নিজেদের গেম প্লান নিয়েও তারা কাজ করছেন। কারণ গেম প্লান ছাড়া নেমেই ভালো কিছু করা সম্ভবপর নয়।

তিনি বলেন, ‘আমাদের দুইজনের চিন্তাধারা একই রকম। আমরা প্রথমই চিন্তা করছি দলের গেম প্লানটা কী। কারণ আসলে আমাদের তো প্রমাণের কিছু নেই। আমরা ম্যাচ ও কন্ডিশন অনুসারে খেলার চেষ্টা করব।’

এক প্রশ্নের উত্তরে গেইল বলেন, ‘আমি আসলে জানি না আর কত রান হলে আমার ১১০০০ রান পূর্ণ হবে। তবে এখানে বড় জোড় নয় ম্যাচ। ফলে এ ম্যাচ দিয়ে সম্ভবত ওই পর্যায়ে যাওয়া সম্ভবপর নয়। তবে আমি আশা করছি এবং ওই টার্গেটে যাওয়ার চ্যালেঞ্জও রয়েছে আমার সামনে।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন