বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৮ ০৯:২১:৩৪ এএম

ছেলেকে কার কাছে রেখে আসলে শাকিব খুশি হতেন : অপু বিশ্বাস

বিনোদন | শনিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৭ | ০৫:১৯:২২ পিএম

একা ফেলে আসবো কেন? আমি ছেলের মা, আমার চেয়ে বেশি দরদি কেউ নয় তার জন্য। মায়ের চেয়ে সন্তানের জন্য দুশ্চিন্তা আর কে করে? আজ (শুক্রবার) কিছু নিউজ দেখলাম, মনে হলো মায়ের চেয়ে মাসীদের দরদ বেশ দেখছি।

সবাই মুখে মুখে মায়াকান্না করে বেড়াচ্ছেন কেন আমি ছেলেকে রেখে একা আসলাম। কিন্তু উত্তরটা কেউ দিচ্ছেন না যে কেন আসলাম? আমার কী কেউ নেই? স্বামী আছে, শ্বশুরবাড়ি আছে। কেন আমাকে একা আসতে হলো?

আমার সঙ্গে কেউ থাকলে তো ছেলেকে সঙ্গে আনা যেতই। কাউকে যখন পেলাম না বাধ্য হয়েই ছেলেকে রেখে আসলাম। আর ঠান্ডাজনিত অসুখে জয়ও কয়দিন ধরে ভুগেছে। তাই একা একা জার্নির ভেতর ওকে এনে কষ্ট দিতে চাইনি।

জয়কে আমি একা রেখে আসিনি। বাসায় তিনজন কাজের মেয়ে আছে। আমার বোন শেলী আপুকে রেখে এসেছি। বাসার ম্যানেজার, দারোয়ান ও আমার গাড়ির ড্রাইভারকে সবকিছু বুঝিয়ে দিয়ে এসছি যাতে কোনো সমস্যা না হয়।

একটু পর পর আমি বাসায় কল দিচ্ছি, খোঁজ নিচ্ছি। আমার সংসার, আমার চেয়ে নিশ্চয় অন্য কেউ বেশি সিরিয়াস হবে না? এছাড়া আর কার কাছে রাখতে পারতাম। কার কাছে রেখে আসলে শাকিব খুশি হতেন?

এমন আস্থাভাজন কেউ তো নেই যার কাছে আমার ছেলেকে একটা দিনের জন্য রেখে আমি চিকিৎসা নিতে আসবো। শাকিবের পরিবার আমার সঙ্গে যোগাযোগ করে না। ওর বাবা-মায়ের হয়তো ইচ্ছে করে না তাদের একমাত্র নাতিকে দেখতে।

আমি কী করতে পারি? ওরা যদি দায়িত্বটা নিতেন তবে আমাকে টেনশন করতে হতো না। এইসব মুখরোচক কাহিনিও ছড়াতো না। তারা কী শুনেনি কিছুদিন আগে আমার ছেলে অসুস্থ ছিলো? কেউ তো আসেনি? শাকিব কী শুনেনি?

ও সব খবর পায়, ছেলে-বউ অসুস্থ থাকলে সেই খবর পায় না কেন? ও তো ছেলে অসুস্থ থাকলে ছুটে আসেনি। সবকিছু আমাকেই সামলাতে হয়। তাতে আমার কোনো ক্ষোভ নেই। আমি ধরেই নিয়েছি আমার স্বামী ছাড়া কেউ নেই।

স্বামী ব্যস্ত থাকে তাই আমাকে এক হাতেই সংসার-সন্তান সামলাতে হবে। তবে কেন লোক হাসানো হচ্ছে এসব স্বস্তা সেন্টিমেন্ট ছড়িয়ে আমি বুঝি না। এই দেশে অনেক মা আছেন যারা সন্তানকে বাসায় রেখে সারাদিন অফিস করে বেড়ান। তাদের নিয়ে কী কেউ নিউজ ছাপায়? তাদের স্বামীরা কী এমন করে?

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন