মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ ১২:৪৬:১০ পিএম

হয়রানীর অপর নাম এই চমেক ব্লাড ব্যাংক

কামাল (স্বপ্নযাত্রী ফাউন্ডেশন) | জেলার খবর | চট্টগ্রাম | বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ | ১১:২৬:২৫ এএম

জরুরী রোগীর রক্তের জন্য অামরা স্বেচ্চাসেবকরা রাত দিন পরিশ্রম করি, বিনা বেতনে নিজের পকেটের টাকা, ইন্টারনেট এবং মোবাইলের চার্জ খরচ করে ডোনার সংগ্রহ করি।
অার ডোনাররা ঘাটের পয়সা খরচ করে কাজ কর্ম বাদ দিয়ে রাত দিন, সময় অসময় বিবেচনা না করে ছুটে অাসেন এই ব্লাড ব্যাংকে নিজের দেহের রক্ত দিতে। 
কিন্তু অনুতাপের বিষয় এখানে এসে কমপক্ষে ২ঘন্টা ডিউটি করতে হয় হতভাগ্য ডোনারদের।
মুমূষ্যু, অাইসিউ,অপারেশন যেমন হোক,স্বজন মারা যাক ওদের সময় দিতে হবে।সচেতনতার জন্য ছবি তুলতে পারবেননা অাপনি।ওদের সাথে কথা বলতে অনেক সময় দরখাস্ত লিখতে হয়।স্বেচ্চায় কাজ করা মহামানবদের সাথে বেতনভুক্ত কর্মচারীদের অাচরণ অবাক করার মত।অথচ ওনারা ভুলে যান অামাদের টাকায় ওদের বেতন হয়।

ব্লাড ব্যাংকের সামনে বিশাল জটলা যেন নিত্ত নৈমিত্তিক ব্যাপার।উপরে কোন ফ্যান নেই, রক্ত দিয়ে গরমে অনেক ডোনার বেহুশ হয়ে পড়েন।

নার্সদের কাছে জানতে চাইলে জনবল,স্থান এবং ইনস্টুমেন্ট ঘাটতির কথা জানান। একটি ফ্যান লাগানোর ক্ষমতা ও কি ওদের নেই?

কথা হচ্ছে সরকার বা মেডিকেল কতৃপক্ষের অতি প্রয়োজনীয় এই ব্লাড ব্যাংক সম্পসারণ এবং অাধুরিকায়ন করা সময়ের দাবী হয়ে দাড়িয়েছে।
এই বিষয়ে সংশিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি অাকর্ষন করছি। এবং সচেতন মহলের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন