শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৫:৩৬:২৮ পিএম

এবার গ্রেফতার সৌদির দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী

আন্তর্জাতিক | শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭ | ০২:৩৯:১১ এএম

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নেতৃত্বাধীন দুর্নীতি দমন কমিশনের অভিযানে এবার আটক হলেন দেশটির দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী মোহাম্মদ হুসেইন আল আমাউদি। এর আগে দেশটির শীর্ষ ধনী প্রিন্স ওয়ালিদ বিন তালালকে গ্রেফতার করে সৌদি প্রশাসন।

যদিও ওই গ্রেফতারির ঘটনায় ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়। দুর্নীতির অভিযোগে শুধু তালালকে নয় সে সময় তার মেয়েকেও একই অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। সেই রেশ না কাটতে এবার দেশটির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ধনী আল আমাউদিকে গ্রেফতার করা হয়। গতকাল মিডল ইস্ট মনিটর এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিন তালালের গ্রেফতারের পর ধস নামে সৌদি স্টক এক্সচেঞ্জে। দেশটির অর্থনীতিতেও এই ঘটনা প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন বিশ্লেষকরা। এবার আল আমাউদির গ্রেফতারও দেশটির অর্থনীতিকে অস্থিতিশীল করতে পারে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট আই। ‘দ্য শেখ’ নামে পরিচিত আল আমাউদি।

তিনি সৌদি আরবের সঙ্গে ইথিওপিয়ারও নাগরিক। তিনি ইথিওপিয়ায় হোটেল, কৃষি এবং জ্যোতিষশাস্ত্রসহ অর্থনীতির প্রায় সব ক্ষেত্রেই বিনিয়োগ করেছেন। আফ্রিকার দ্রুততম উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে ইথিওপিয়া অন্যতম। বিগত ১০ বছরে দেশটিতে আল আমাউদির মোট কত বিনিয়োগ করেছেন তা অবশ্য জানা যায়নি।

তবে ধারণা করা হয় ইথিওপিয়ায় তিনি সাড়ে তিন বিলিয়ন ডলার (প্রায় ২৯ হাজার কোটি টাকা) বিনিয়োগ করেছেন, যা দেশটির বর্তমান জিডিপির ৪ দশমিক ৭ শতাংশ। গত ৪ নভেম্বর যুবরাজ বিন সালমানের নেতৃত্বাধীন দুর্নীতি বিরোধী অভিযানে গ্রেফতার করা হয় ১১ জন রাজপুত্রসহ বেশ কয়েকজন মন্ত্রীকে। তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় ছিলেন প্রিন্স কিন তালাল। সৌদি ব্যবসার মূল মুখপাত্র ভাবা হয় তাকে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন