বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ০১:১৫:১৫ এএম

চাঁদাবাজির অভিযোগে যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

জেলার খবর | কুমিল্লা | বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০১৭ | ১২:১২:৩৪ পিএম

চাঁদাবাজির অভিযোগে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) কুমিল্লার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৭নং আমলী আদালতে ২ লাখ টাকা চাঁদা চাওয়ার অভিযোগে বরকইট ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান এ মামলা দায়ের করেন।

আসামীরা হলেন, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক ও গল্লাই গ্রামের রফিকুল ইসলাম মুন্সির পুত্র ও জহিরুল ইসলাম মুন্সি (৩৫), পৌর এলাকার রারিরচর গ্রামের কেনু ভূঁইয়ার ছেলে পৌর কাউন্সিলর সুরুজ ভূঁইয়া (৪০) ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, শ্রীমন্তপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে ও বরকইট ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড মেম্বার আওলাদ হোসেন (৩৪)।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, আসামীরা বিভিন্ন সময় উপজেলার শ্রীমন্তপুর বাজারের ব্যবসায়ী ও যুবলীগ নেতা শাহজাহানের নিকট চাঁদা দাবী করে আসছে। একপর্যায়ে গত মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) বিকাল ৪টায় শ্রীমন্তপুর বাজারে শাহজাহানের মোটরসাইকেল রিপেয়ারিং দোকানে গিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে দোকানে রক্ষিত নগদ ২ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এর জের ধরে উল্লেখিত আসামীদের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন ব্যবসায়ী শাহজাহান। এছাড়াও আসামীরাসহ একটি সংঘবদ্ধচক্র ওই এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত চাঁদাবাজি করে আসছে বলেও অভিযোগ করেন শাহজাহান।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবি কুমিল্লা জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের সহকারী পিপি এড. শাহজাহাল মিঞা শিপন জানান, বাদী পক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে এফআইআর করার জন্য থানার ওসিকে নির্দেশ প্রদান করেন।

এ ঘটনায় ব্যবসায়ী শাহজাহান জানান, তারা (অভিযুক্তরা) আমার কাছে চাঁদাদাবী করে আসছে। আমি চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে গত মঙ্গলবার আমার দোকানে গিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ ২ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা জহিরুল ইসলাম মুন্সি জানান, ঘটনার সময় ও তারিখে আমরা চান্দিনা উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে দলের কর্মী সমাবেশে ছিলাম। এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা।

জানতে চাইলে চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ জানান, মামলার কপি বা আদালতের আদেশ এখনও পাইনি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন