মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৮ ০৩:২৪:৩৭ পিএম

খালেদাকে কেন গ্রেফতার করে না আদালতকে জিজ্ঞেস করুন:সাংবাদিকদের কাদের

রাজনীতি | শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৪:১৬:২৮ পিএম

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে বার বার গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হলেও কেন গ্রেফতার করা হচ্ছে না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, আদালত আইন সরকার নিয়ন্ত্রণ করে না। খালেদা জিয়াকে কেন গ্রেফতার করা হচ্ছে না আদালতকে জিজ্ঞাস করুন। সরকার যদি হস্তক্ষেপ করত তাহলে খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের ব্যবস্থা করানো হত।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদক মন্ডলীর সাথে সহযোগী সংগঠনের যৌথসভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার পর বিএনপি নেতাদের প্রতিক্রিয়া হাস্যকর উল্লেখ করে কাদের বলেন, তারা (বিএনপির নেতারা) প্রতিক্রিয়া দিল সরকার নাকি খালেদার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। বিএনপিতো আইন আদালত মানে না তাদের সার্থের বিরুদ্ধে গেলেই আদালতে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে। এটার প্রমান দিয়েছে তারা আদালতের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ বিক্ষোভ সমাবেশ দিয়ে।

তিনি আর বলেন, রাজনীতি করলে কি আইন মানবেন না? তারই তো নিয়ন্ত্রিত ফখরুদ্দীন, মাইন উদ্দিন মামলা করেছে। তাদের কথা শুনে মনে হচ্ছে এই সরকারই মামলা করেছে।

মন্ত্রী বলেন, আদালত যখন ষোড়শ সংশোধনী রায় দেয় তখন আদালত স্বাধীন। আদালত যখন খালেদাকে সেনানিবাসের বাড়ি থেকে বের করে দিল তখনই বলছে আদালতে হস্তক্ষেপ করছে সরকার। এখন সেই বাড়িতে সেনাবাহিনীর ৫০২ জন কর্মকর্তা বাস করছে। এটা কি সরকারের দোষ?

বিএনপি সাড়ে ৮ বছরে সাড়ে ৮ মিনিটও আন্দোলন করতে পারে নাই দাবি করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, যদি তারা কোন প্রকারে যদি দেশে অশান্তি করতে চায় তাহলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

জনগণ এখন আর বিএনপিকে চায় না উল্লেখ করে কাদের বলেন, বাংলাদেশের জনগণ এখন ভাবছে কিভাবে এই সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনবে। কারণ আওয়ামী লীগের অনেক উন্নয়ন সফলতা আছে। আর বিএনপির কিছুই নেই।

আগাম নির্বাচন প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, এটাতো প্রধানমন্ত্রী জানে। আর সংবিধান অনুযায়ী ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে মধ্যে নির্বাচন হবে। আমরা সব সময় প্রস্তুত আছি নির্বাচনে জন্য। আগামী মাসেও যদি হয় আমরা প্রস্তুত।

এর আগে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রথম মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে সম্পাদক মন্ডলীর পক্ষ থেকে শোক জানানো হয় ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সংগঠনিক সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাসিম, এনামুল হক শামীম, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন