শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০১:১২:০৪ পিএম

রাজশাহীতে নেই স্যামি

খেলাধুলা | শনিবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০১:১১:৩১ পিএম

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় এক সঙ্গে প্রায় তিন দলের অনুশীলন চলছিল শেরে বাংলার একাডেমি মাঠে। আর একাডেমি ভবনে অস্থায়ী মসজিদে জুুমার জামাত শুরু হলো দুপুর দেড়টায়। প্র্যাকটিস চলা অবস্থায় এক ঝাঁক ক্রিকেটার একাডেমি ভবনে আসলেন জুমার নামাজ পড়তে। মূলত রংপুর রাইডার্স আর রাজশাহী কিংসের ক্রিকেটাররাই বেশি ছিলেন। মুমিনুল, সোহাগ গাজী, শাহরিয়ার নাফীস, জিয়ার সঙ্গে বিদেশি মোহাম্মদ সামি আর সামিউল্লাহ শেনওয়ারি এবং রংপুর রাইডার্সের টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার নাজমুল আবেদিন ফাহিম আর রাজশাহী কিংসের কোচ সারোয়ার ইমরান ও ম্যানেজার সাজ্জহাদ আহমেদ শিপনও জুমার নামাজ আদায় করলেন।

নামাজ শেষে নিবিড় অনুশীলনে ব্যস্ত হয়ে উঠলেন রাজশাহী ক্রিকেটাররা। মুমিনুল আর মুশফিকুর রহীম বাড়তি সময় ব্যাটিং প্র্যাকটিস করলেন। তারা বাড়তি সময় ও নিবিঢ় অনুশীলনে ব্যতিব্যস্ত হতেই পারেন। কারণ শনিবার ঢাকা ডায়নামাইটসের সঙ্গে ম্যাচটি এক কথায় রাজশাহীর অস্তিত্বের লড়াই। জয় পেলে শেষ চারে খেলার সম্ভাবনা টিকে থাকবে। আর হারলে হিসেব নিকেশ অনেক জটিল হয়ে যাবে। তখন অনেক ‘যদি-তবের হিসেব নিকেশে পড়ে যেতে হবে।

এদিকে এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নেই চালিকাশক্তি ও অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকার জন্য নিউইয়র্ক চলে গেছেন স্যামি। আগেরবার যার প্রায় একার নৈপুণ্যে ফাইনাল পর্যন্ত গিয়েছিল দল, ইনজুরি বাঁধা হয়ে দাঁড়ানোয় এবার সামর্থ্যের সেরাটা উপহার দেয়া সম্ভব হয়নি। তারপরও এবারো দলের মধ্যমণি ওয়েষ্ট ইন্ডিজের এ দীর্ঘ দেহী অলরাউন্ডার। তাকে ছাড়া দল সাজানোও কঠিন।

কিন্তু কিছুই করার নেই। মাঠের বাইরে সদা হাস্য কৌতুক করা ড্যারেন স্যামি সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে দাঁড়াতেই উড়ে গেছেন সাত সমুদ্র তেরো নদীর ওপারে নিউইয়র্কে। তার না থাকার অর্থ দল দূর্বল হয়ে পড়া। তার বিকল্পও নেই কেউ। তারপরও কোচ সারোয়ার ইমরান হতাশায় মূষরে পড়তে নারাজ।

তার কথা, স্যামি মানবিক ও পারিবারিক কারণে চলে গেছে। তাতে আমি চিন্তি নই। আমার বিকল্প আছে। কিন্তু তারাও আহত। ডোয়েন স্মিথ আর ল্যান্ডল সিমন্স দুজনই ইনজুরিতে। তারা শতভাগ ফিট থাকলে চিন্তা হতনা এতটা। তারপরও উপায় নেই। অগত্যা তাদের দিকেই তাকিয়ে কোচ ইমরান।

রাজশাহী ফিজিও বায়েজিদ জানালেন, ডোয়েন স্মিথ আর ল্যান্ডল সিমন্স দুজনই অরেকটা সুস্থ। উল্লেখ্য প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই হাফ সেঞ্চুরি করা স্মিথের ফোরা হয়েছিল। এখন তা অনেকটাই ভালো হয়েছে। শনিবার এই ওয়েষ্ট ইন্ডিয়ানকে খেলতে দেখা যাবে।

এদিকে আজকের বাঁচা মারার লড়াইয়ে জিততে মরিয়া ঢাকা ডায়নামাইটস কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন ও রাজশাহী প্রশিক্ষক সারোয়ার ইমরান। দুজনার দুই রকম সমস্যা। ইমরানের প্রধান অস্ত্র ও এক নম্বর ম্যাচ উইনার ড্যারেন সামি নেই। আর যারা আছেন তারাও শতভাগ সুস্থ নন।

অন্যদিকে ঢাকার সমস্যা মধুর। এক ঝাঁক বিদেশি। এভিন লুইস, আফ্রিদি, সাঙ্গাকারা, সুনিল নারিন, মোহাম্মদ আমির, জো ডেনলি আর ক্যামেরন ডেলপোর্ট- এক ঝাঁক বিদেশি বেঞ্চে। কোচ চিন্তায় ও খানিক দ্বিধায় কাকে রেখে কাকে খেলাবেন। সবার একটাই কথা, সাকিব আল হাসানের নেতৃতের ঢাকা এবারো দারুণ দল। সর্বাধীক তারার মেলা।

কিন্তু সঠিক কম্বিনেশন না হওয়ায় দলটির এখনো সেরা চারে স্থান নিশ্চিত হয়নি। শেষ দুই ম্যাচে জয় ধরা দেয়নি। তাই শনিবারের ম্যাচেও একাদশ সাজাতে খানিক দ্বিধায় কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। তার একটাই কথা, আমার যে দুটি ম্যাচ আছে তার অন্তত একটিতে জিততেই হবে। আমি এ মুহুর্তে দল জেতানোর কথাই ভাবছি।

চোখ মুখের ভাষা বলে দিচ্ছিল, দলকে কিভাবে জয়ের পথে নিয়ে যাওয়া যায়, সে চিন্তায় বিভোর খালেদ মাহমুদ সুজন। তার শেষ কথা, আমি সেরা কম্বিনেশন সাজানোর চেষ্টায় আছি। সেই কস্বিনেশন কি? কৌশলগত কারণে তা জানাতে অপরাগতা সুজনের।

এদিকে রাজশাহী ম্যানেজার সাজ্জাদ শিপন দিলেন এক তথ্য, ‘জানালেন, শনিবার ঢাকাকে হারাতে পারলে স্যামি আবার ফিরে আসবেন। আমরা শনিবারের ম্যাচ জিততে মুখিয়ে আছি। সব বলা আছে। ঢাকাকে হারাতে পারলে চিটাগাং ভাইকিংসের সাথে ম্যাচের আগেই চলে আসবেন স্যামি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন