শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৮:১২:৫৭ পিএম

মাকে হত্যা করে ফ্ল্যাটটি নিতে চান মেয়ে!

নগর জীবন | রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০১:০৮:৩৮ পিএম

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের পশ্চিম আগারগাঁও এলাকায় বৃদ্ধ মাকে হত্যা করে একমাত্র সম্বল ফ্ল্যাটটি দখলে নিতে চান নিজের বড় মেয়ে শিরিন আখতার। মৃত চাঁদ মিয়ার বিধবা স্ত্রী ওহিতুন্নেসা বেগমকে মারধর করে ফ্ল্যাটটি দখলের পাঁয়তারা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন এর মালিক ওহিতুন্নেসা।

মায়ের ওপর নির্যাতন এবং তাকে নানাভাবে হত্যার হুমকি দিয়ে ফ্ল্যাটটি তালাবদ্ধ করে রাখেন ওহিতুন্নেসার বড় মেয়ে শিরিন আক্তার। শিরিনের স্বামী গোলাম মর্তুজার কারণে তার স্ত্রী খুবই বেপরোয়া হয়ে ওঠেন। বিষয়টি সমাধানের জন্য স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ফোরকান হোসেনের কাছে অভিযোগ করার পাশপাশি শেরেবাংলা নগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন ওহিতুন্নেসা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নিজের নামে পশ্চিম আগারগাঁও এলাকায় অবস্থিত ২১৯ নম্বর প্লটে সাড়ে চার কাঠা জমির মালিক ওহিতুন্নেসা। সেখান থেকে প্রায় ৩০ বছর আগে সেই প্লটের কিছু অংশ বড় মেয়ে শিরিন আক্তারকে হেবাদলিলে দান করে দেন বৃদ্ধা মা। পরে বড় মেয়ের হেবা করা জমি ও বৃদ্ধ ওহিতুন্নেসার আড়াই কাঠাসহ পুরো জমি ডেভেলপার কম্পানির কাছে ফ্ল্যাট নির্মাণের জন্য দেওয়া হয়। এরপর ফ্ল্যাটটি নির্মাণের পর চারটি ফ্ল্যাট বুঝে পান তিনি। সেই ফ্ল্যাটের দুটি দুই মেয়েকে লিখে দেন আর একটি বিক্রি করে দেন। বাকি একটি ফ্ল্যাট ছিল বৃদ্ধার বসবাসের জন্য।

কিন্তু মায়ের ফ্ল্যাটটিতে হঠাৎ তালা মেরে দেন বড় মেয়ে শিরিন আক্তার। মাকে মারধর করে বের দেন ফ্ল্যাট থেকে। ফ্ল্যাট বুঝে পেতে স্থানীয় কাউন্সিলরসহ থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন বৃদ্ধা। কারো কথাই শুনছেন না মেয়ে শিরিন। এলাকার কিছু মাদক ব্যবসায়ীর সঙ্গে আঁতাত করেই মায়ের ফ্ল্যাটটি দখলে নিয়ে তিনি তা বিক্রির পাঁয়তারা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বৃদ্ধ ওহিতুন্নেসা বেগম কাছে অভিযোগ করে বলেন, 'যে মেয়েকে জমি লিখে দিলাম আজ সেই মেয়েই আমাকে মেরে ফেলতে চায়। আমার ফ্ল্যাটে তালা মেরে দেয়। আমাকে খুন করে ফ্ল্যাটটি দখলে নিয়ে বিক্রি করতে চায়। এলাকার কিছু খারাপ লোককে নিয়ে এসব অত্যাচার চালাচ্ছে। এলাকার কমিশনারও কিছু করতে পারেন না। থানা পুলিশও নাকি মাইয়াডার হাতের মুঠায়।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে ওহিতুন্নেসা বলেন, 'আমি গতকাল ফ্ল্যাটে উঠতে চাইলে ধাক্কা দিয়ে আমাকে ফেলে দেয় এবং বটি দিয়ে কোপাইতে আইছে। আমার থাকার একমাত্র সম্বল ছোট ফ্ল্যাটটি জোর করে নিতে চায়। না দিলে আমাকে নাকি খুন করবে। এর আগে দুইবার আমাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল। '

বৃদ্ধার ছোট মেয়ে মাকসুদা খানম বলেন, 'আমার মায়ের সব সম্পত্তিই সবাইকে ভাগ করে দিয়েছেন, শুধু ওই ছোট্ট ফ্ল্যাটটি ছিল মায়ের থাকার জন্য। সেটিও বড় বোন দখলে নিতে চায় এবং মাকে মেরে ফেলতে চায়। ' আরেক মেয়ের জামাই মনির হোসেন বলেন, 'কতটা খারাপ হলে মেয়ে তার মাকে মারধর করে ফ্ল্যাট দখলে নিতে চায়, মাকে ফ্ল্যাট থেকে বের করে দেয়। আমি একই অ্যাপার্টমেন্টে থাকলেও ভয়ে কিছু বলতে পারি না। '

২৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ফোরকান হোসেন বলেন, 'আমার কাছে মায়ের ফ্ল্যাট মেয়ে দখলে নেওয়ার অভিযোগ এসেছিল। বিষয়টি সমাধানের জন্য মেয়েকে তিনবার নোটিশ দেওয়া হলেও তিনি আসেননি। খোঁজ নিয়ে জেনেছি, মেয়েটির মাকে মারধর করে এবং ফ্ল্যাটে তালা মেরে রাখে। বৃদ্ধ নারীর বড় মেয়ে খুবই খারাপ, জোর করেই ফ্ল্যাটটি দখলে নিতে চাচ্ছেন তিনি।-কালের কণ্ঠ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন