মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ ১০:০৩:১৮ পিএম

অপুর কথিত বয়ফ্রেন্ড একজন নায়ক! যার সঙ্গে অপু

বিনোদন | মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৪:৪৬:০১ পিএম

অপু বিশ্বাসকে তার স্বামী শাকিব খান ডিভোর্স নোটিশ পাঠিয়েছেন। গত ২৮ নভেম্বর সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবির সিরাজুল ইসলাম সিরাজের মাধ্যমে অপুর ঠিকানায় এই নোটিশ পাঠানো হয়েছে। সেখানে অপুকে ডিভোর্স দেয়ার দুটি কারণ উল্লেখ করেন শাকিব।

গুরুত্বর কারণ হচ্ছে, অপুর ‘কথিত’ বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে মেলামেশা। শাকিব অভিযোগ করেন, অপু তাদের সন্তান জয়কে কাজের লোকের কাছে রেখে ‘কথিত’ বয়ফ্রেন্ডকে নিয়ে ভারতে বেড়াতে গিয়েছিলেন গত মাসে। অভিযোগে শাকিব আরও দাবি করেন, অপু তার কোনো নির্দেশ মেনে চলেন না। তাই তিনি বিবাহবিচ্ছেদ চান।

শাকিবের অভিযোগের প্রেক্ষিতে আলোচনায় উঠে এসেছে অপু বিশ্বাসের কথিত ‘বয়ফ্রেন্ড’র বিষয়টি। চলচ্চিত্রের সবখানেই এখন আলোচনা কে সেই বয়ফ্রেন্ড? যদিও শাকিব তার ডিভোর্স পেপারে অপুর সেই কথিত বয়ফ্রেন্ডের নাম উল্লেখ করেননি। তার উকিলও কোনো নাম উল্লেখ করছেন না। আর অপু বিশ্বাস তো ডুব মেরে আছেন গতকাল বিকাল থেকেই।

এদিকে শাকিব খানের একাধিক ঘনিষ্ঠ সূত্র জানাচ্ছে, অপু বিশ্বাসের সেই বয়ফ্রেন্ড নিয়ে একাধিকার শাকিবের কানে কথা গিয়েছে। সেই বয়ফ্রেন্ড চলচ্চিত্রের একজন নায়ক! যার সঙ্গে ইদানিং অপুর মেশামেলা বেড়েছে। এমনকি অপু সম্প্রতি ভারতে গেলে সেই নায়কও তখন ছিলেন ভারতে।

শুধু তাই নয়, শাকিব দেশের বাইরে থাকাকালীন অপুর সঙ্গে সেই কথিত বয়ফ্রেন্ড দেখা করতো। অপুর বাসায় সেই প্রেমিকের যাতায়াতের সাক্ষ্য নাকি দিয়েছেন বাসার দারোয়ান। এই সব খবরই শাকিবের কাছে পৌঁছানোর পর অপুর উপর বিরক্ত হয়েছেন শাকিব।

আরও গুঞ্জন ছড়িয়েছে, নিকেতনে নিজের বাসার আশপাশে সেই কথিত প্রেমিককে ফ্ল্যাট খুঁজে দেয়ার চেষ্টা করেছেন অপু বিশ্বাস। নিজের বাসার ম্যানেজারকে সেই দায়িত্ব দিয়েছেন তিনি। এমনকি সেই নায়ক প্রেমিকের সঙ্গে জুটি বেঁধে ছবি করার চেষ্টাও করছেন অপু।

তবে কেই সেই বয়ফ্রেন্ড তা বিস্তারিত বলেননি শাকিব। জানাননি তার নামও। তাই চলচ্চিত্রপাড়ায় এখন সোনার হরিণের মতো সন্ধান চলছে সেই নাম উদ্ধারের। ধারণা করা হচ্ছে শুটিং শেষ করে দেশে ফিরে এই বিষয়ে মুখ খুলবেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে এই তারকা দম্পতি বিয়ে করলেও, আট বছর ধরে বিয়ের কথা গোপন রেখেছিলেন তারা। কিন্তু এ বছর ১০ই এপ্রিল হঠাৎ অপু বিশ্বাস তার ছয় মাসের শিশুকে নিয়ে লাইভ টেলিভিশনে বিয়ের কথা ফাঁস করে দিলে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়। বিয়ের খবর প্রকাশের আট মাসের মাথায় বিবাহবিচ্ছেদে গেলেন তারা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন